সোমবার, ১৯-আগস্ট-২০১৯ ইং | সকাল : ০৫:১১:৩৮ | আর্কাইভ

চিটাগংকে বিদায় করে টিকে রইলো ঢাকা

তারিখ: ২০১৯-০২-০৪ ০৫:০৪:২৯ | ক্যাটেগরী: খেলা | পঠিত: ৭৯ বার

এলিমিনেটর ম্যাচ, হারলেই বাদ। দুই দলের জন্যই কঠিন পরীক্ষা। সেই পরীক্ষায় লেটার মার্ক নিয়ে পাস করল সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। রাউন্ড রবিন লিগে একটা সময় একক দাপট দেখানো চিটাগং ভাইকিংস নকআউট পর্বে এসে পাত্তাই পেল না। মিরপুরে মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুশফিকুর রহীমের দলকে ২০ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখে হারিয়ে টুর্নামেন্টে টিকে রয়েছে ঢাকা। তাতে বিদায় হয়ে গেছে চিটাগংয়ের।

লক্ষ্যটা খুব বেশি ছিল না, ১৩৬ রানের। ঢাকা ডায়নামাইটসের দুই ওপেনার সুনিল নারিন আর উপুল থারাঙ্গা সেটাকে আরও সহজ করে দিলেন। ২৭ বলে ৪৪ রানের উদ্বোধনী জুটিতে অবশ্য নারিনের অবদানই ছিল বেশি। মাত্র ১৬ বলে ৬ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় ৩১ রান করে খালিদ আহমেদের শিকার হন নারিন।

এরপর রনি তালুকদার আর থারাঙ্গার ৪৪ রানের আরেকটি জুটি। ১৩ বলে ১টি করে চার ছক্কায় ২০ রানের ছোটখাট এক ঝড় তুলে রনি খালেদের দ্বিতীয় শিকার হন। ওই ওভারেই পরের বলে সাকিবকেও গোল্ডেন ডাকে (১ বলে ০) ফেরান দুর্দান্ত বোলিং করা খালেদ।

তবে উপুল থারাঙ্গা হাফসেঞ্চুরি তুলে নিতে ভুল করেননি। ৪৩ বলে ৭ চারে ৫১ রান করা এই ব্যাটসম্যানকে শেষ পর্যন্ত ফেরান নাঈম হাসান। তবে ততক্ষণে ঢাকার জয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গেছে। ৪৫ বলে তখন তাদের দরকার ৩৪ রান। বাকি কাজটুকু হেসেখেলেই সেরেছেন নুরুল হাসান সোহান আর কাইরন পোলার্ড। সোহান ২০ বলে ২০ আর পোলার্ড অপরাজিত থাকেন ৭ বলে ৭ রানে।

এর আগে ঢাকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান এবং অফস্পিনার সুনিল নারিনের স্পিন বিষে নীল হয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ১৩৫ রানের বেশি করতে পারেনি তারা।

টসে জিতে আগের ম্যাচে শূন্য রানে আউট হওয়া মোহাম্মদ আশরাফুলকে দলের বাইরে রেখে আগে ব্যাট করতে নামে চিটাগং। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ৮ রান করে ফিরে যান ইয়াসির আলি। ভালো খেলতে থাকা ক্যামেরন ডেলপোর্ট কাঁটা পড়েন রানআউটের শিকার হয়ে।

ইনিংসের অষ্টম ওভারে সাদমান ইসলামের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে আউট হন ডেলপোর্ট। ৫ চার ও ১ ছক্কার মারে ২৭ বলে ৩৬ রান করেন তিনি। ব্যর্থ হন অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম (৮), দাশুন শানাকা (৭), রবি ফ্রাইলিংক (১) ও ভিলজোয়েনরা (১)।

মোহাম্মদ আশরাফুলের জায়গায় খেলতে নেমে ১৯ বলে ২৪ রান করেন সাদমান। ২টি চারের সঙ্গে ১টি ছক্কা হাঁকান তিনি। শেষদিকে দলের সংগ্রহটা ১৩৫ রান পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার পুরো কৃতিত্ব মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের।

কাজী অনিকের করা শেষ ওভারে ২ চার ও ১ ছক্কাসহ মোট ১৫ রান নেন তিনি। সবমিলিয়ে ৩ চার ও ১ ছক্কার মারে ৩৫ বলে ৪০ রান করেন তিনি। ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৫ রানে থামে চিটাগংয়ের ইনিংস।

বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন সুনিল নারিন। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন কাজী অনিক ও রুবেল হোসেন। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান উইকেটশূন্য থাকলেও ৪ ওভার থেকে মাত্র ১১ রান খরচ করেন।

তারিখ সিলেক্ট করে খুজুন

A PHP Error was encountered

Severity: Core Warning

Message: PHP Startup: Unable to load dynamic library '/opt/cpanel/ea-php56/root/usr/lib64/php/modules/pdo_mysql.so' - /opt/cpanel/ea-php56/root/usr/lib64/php/modules/pdo_mysql.so: cannot open shared object file: No such file or directory

Filename: Unknown

Line Number: 0

Backtrace: