সোমবার, ২৫-মার্চ-২০১৯ ইং | বিকাল : ০৫:৩২:০২ | আর্কাইভ

সময়টা একদমই ভালো যাচ্ছে না’

তারিখ: ২০১৮-১২-২২ ১২:৩০:১৮ | ক্যাটেগরী: বিনোদন | পঠিত: ৫৮ বার

চলতি বছরটা দেখতে দেখতে শেষ হয়ে এলো। এ বছর আমার অভিনীত ‘আমি নেতা হবো’, ‘পবিত্র ভালোবাসা’, ‘লিডার’, ‘নায়ক’ ও ‘পোস্টমাস্টার ৭১’ নামের ছবিগুলো মুক্তি পায়। একটির গল্প অন্যটির চেয়ে ছিল আলাদা।  এ ছবিগুলোর গল্প ছিল মৌলিক। সবশেষে আমার অভিনীত এবং হাবিবুল ইসলাম হাবিব ভাই পরিচালিত ‘রাত্রীর যাত্রী’ ছবিটি গত ১৪ই ডিসেম্বর মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও নির্বাচনের কারণে তা পিছিয়েছেন ছবির প্রযোজক ও পরিচালক। তারপরও সবমিলিয়ে মোটামুটি ভালোই কেটেছে বছরটি। তবে বছর শেষে আমজাদ হোসেন ও সাইদুল আনাম টুটুলের মতো গুণী নির্মাতাদের মৃত্যু আমাকে অনেক কষ্ট দিয়েছে। কথাগুলো  বলেছেন দেশীয় চলচ্চিত্রের ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়া অভিনেত্রী মৌসুমী। সম্প্রতি একটি বিজ্ঞাপনেও চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি।
কয়েকদিন পরই ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন। এখনো বেশ ব্যস্ত সময় কাটছে তার। তবে বিভিন্ন ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পেলেও খুব বেছে কাজ করতেই পছন্দ করেন মৌসুমী। তিনি বলেন, চলচ্চিত্রের সময়টা এখন একদমই ভালো যাচ্ছে না। সিনেমা হল থেকে প্রযোজকের পকেটে তেমন টাকা উঠে আসছে না। দর্শকরা মুঠোফোনে ব্যস্ত হয়ে গেছে। ইউটিউব দেখে সময় পার করে দিচ্ছে। কারণ ইন্টারনেটের কারণে বিনোদন এখন কম টাকায় হাতের মুঠোতে পাচ্ছেন অনেকে। তবে তারপরও সিনেমা হলে গিয়ে কোনো নতুন ছবি দেখার আনন্দটাই আলাদা। আর আমি একজন শিল্পী হিসেবে বলতে চাই, ভালো কাজের বিকল্প নেই। কিন্তু দর্শকদের ভালো কাজ দেখার জন্য সর্বত্র উন্নত প্রযুক্তির সিনেমা হল নেই, সুন্দর পরিবেশ সব জেলা, থানা শহরে নেই। এ বিষয়ে কি বলবেন, জানতে চাইলে মৌসুমী জবাবে বলেন, হ্যাঁ। সিনেপ্লেক্স, ই-টিকেটিং সিস্টেম খুব বেশি বেশি দরকার এখন আমাদের। ঢাকায় সিনেপ্লেক্স থাকলে শুধু হবে না, সারাদেশে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় ভালো প্রযুক্তির উন্নত মানের সিনেমা হল দরকার। এ কথাগুলো অনেকদিন থেকেই বলে আসছি। হয়তো সামনে বাস্তবায়ন হবে। তখন আর চলচ্চিত্রের সংকট থাকবে না। প্রযোজকরাও সিনেমা নির্মাণের পর চিন্তিত হয়ে পড়বেন না। মৌসুমী অভিনীত এবং হাবিবুল ইসলাম হাবিবের পরিচালনায় নতুন ছবি ‘রাত্রীর যাত্রী’ সামনে ১৫ই ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পাবে। এ ছবিতে আনিসুর রহমান মিলন, এটিএম শামসুজ্জামান, অরুণা বিশ্বাসসহ অনেক ভালো ভালো অভিনেতা-অভিনেত্রী অভিনয় করেছেন। ছবিটি নিয়ে মৌসুমী বলেন, একটা মেয়ের জার্নিকে খুব সুন্দর করে পরিচালক ফুটিয়ে তুলেছেন। এ ছবির গল্প, গান ও দৃশ্যধারণ দর্শকরা পছন্দ করবেন বলে আশা করছি। ছবির পরিচালক হাবিব ভাইও বেশ ভালোভাবে কাজটি শেষ করেছেন। আমাকে এ ছবিতে দর্শকরা ভিন্ন লুকে পাবেন। এ ছবির বাইরে ‘নোলক’ ছবিতেও অভিনয় করেছেন মৌসুমী। এ ছবিতে তার বিপরীতে আছেন ওমর সানী। ছবিটি প্রথমে রাশেদ রাহা শুরু করলেও পরে কাজ শেষ করেন সাকিব সনেট। সামনে কি কাজ নিয়ে ব্যস্ততা জানতে চাইলে মৌসুমী বলেন, ভালো কিছু কাজের পরিকল্পনা রয়েছে। আর ছোটপর্দায় আপাতত কাজ করছি না। মাঝে কিছু টিভিসিতে মডেল হিসেবে কাজ করেছি। বেশি কাজ নয়, ভালো কাজের সঙ্গে থাকতে চান মৌসুমী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভালো চিত্রনাট্য না পেলে কাজ করতেও ভালো লাগে না। একজন শিল্পী একই চরিত্রে দর্শকের সামনে বার বার হাজির হতে চান না। 

তারিখ সিলেক্ট করে খুজুন