রবিবার, ২০-জানুয়ারি-২০১৯ ইং | সকাল : ০৮:৩৫:৩৩ | আর্কাইভ

সংবাদ প্রকাশের দায়ে সাংবাদিক হত্যা বেড়েছে দ্বিগুণ

তারিখ: ২০১৮-১২-২০ ১২:২৭:০৩ | ক্যাটেগরী: মতামত | পঠিত: ১৪ বার

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এ বছর বিশ্বব্যাপী ৫৩ জন সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩৪ জন সরাসরি তাদের প্রকাশিত রিপোর্টের জন্য টার্গেটে পরিণত হন। এই সংখ্যা আগের বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ। সাংবাদিকদের সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা নিউইয়র্ক ভিত্তিক সংগঠন কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টের (সিপিজে) এক বিশ্লেষণী প্রতিবেদেন এ কথা বলা হয়েছে। প্রতিবেদন অনুসারে, চলতি বছরের প্রথম দিন অর্থাৎ ১লা জানুয়ারি থেকে ১৪ই ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশ্বে ৫৩ জন সাংবাদিককে হত্যা করা হয়েছে। গত তিন বছরের মধ্যেই এই সংখ্যা সর্বোচ্চ। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সিপিজে’র নির্বাহী পরিচালক জোয়েল সাইমন বলেন, হত্যাকাণ্ড হলো নৃশংস সেন্সরশিপ, যাতে তথ্য প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হয়। যেসব সাংবাদিক আমাদের তথ্য সরবরাহ করতে গিয়ে জীবন দিয়েছেন, তাদের পক্ষে দাঁড়াতে ও ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে রাজনৈতিক নেতাদের অবশ্যই সোচ্চার হতে হবে।


সিপিজে’র প্রতিবেদন অনুসারে, এ বছর সাংবাদিকদের জন্য সবচেয়ে প্রাণঘাতী দেশ ছিল আফগানিস্তান। এরপরে রয়েছে সিরিয়া ও ভারত। বিশ্বব্যাপী সাংবাদিকদের হত্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি এ বছরে গণমাধ্যমকর্মীদের জেলে পাঠানোর ঘটনাও বেড়েছে। এ ছাড়া বিশ্বনেতাদের গণমাধ্যমবিরোধী আক্রমণাত্মক বক্তব্য দেয়ার ঘটনা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। ফলে সার্বিকভাবে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সংকটের মুখে পড়েছে। 

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যার বিষয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট জামাল খাসোগিসহ এ বছরে প্রভাবশালী একাধিক সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। ফেব্রুয়ারিতে স্লোভাকিয়ার অনুসন্ধানী সাংবাদিক জান কুসিয়াককে গুলি করে হত্যা করা হয়। আফগানিস্তানে একদল সাংবাদিককে টার্গেট করেন এক আত্মঘাতী হামলাকারী। এতে নিহত হয় ৯ জন। সব মিলিয়ে সংবাদ প্রকাশের কারণে এ বছরে ৩৪ জন সাংবাদিককে হত্যা করা হয়েছে। গত বছর এই সংখ্যা ছিল মাত্র ১৭ জন।

উল্লেখ্য, ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত সিপিজে ১৯৯২ সাল থেকে বিশ্বব্যাপী সাংবাদিক হত্যার তথ্য লিপিবদ্ধ করে। কোনো সাংবাদিক শুধুমাত্র তার পেশাগত দায়িত্ব পালনের কারণে টার্গেটে পরিণত হলে তখনই তাকে সিপিজের তালিকাভুক্ত করা হয়। 
 

তারিখ সিলেক্ট করে খুজুন