মঙ্গলবার, ২৪-নভেম্বর-২০২০ ইং | বিকাল : ০৩:০২:১১ | আর্কাইভ

একদিন পরই ফের ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার

তারিখ: ২০২০-০১-২৮ ০৫:৩৬:৪১ | ক্যাটেগরী: অর্থনীতি | পঠিত: ১৭৩ বার

ঢাকা ভয়েস: পতনের পরের কার্যদিবসেই ঊর্ধ্বমুখী ধারায় ফিরেছে দেশের শেয়ারবাজার। মঙ্গলবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচকের উত্থানের সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণও।

এর আগে টানা তিন কার্যদিবস ঊর্ধ্বমুখী থাকার পর সোমবার দেশের শেয়ারবাজারে দরপতন হয়। দুই বাজারেই মূল্যসূচকের সঙ্গে কমে লেনদেনের পরিমাণ। তবে পতনের এ ধারা দীর্ঘ হয়। মঙ্গলবার আবার ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে দুই বাজার।

এদিন লেনদেনের শুরু থেকেই শেয়ারবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দেয়। লেনদেনের প্রথম ১৪ মিনিটে ডিএসইর প্রধান সূচক ২৩ পয়েন্ট বেড়ে যায়। তবে এরপর সূচক কিছুটা নিম্নমুখী হয়। এতে একপর্যায়ে ডিএসইর প্রধান সূচক ৯ পয়েন্ট কমে যায়।

এ নিম্নমুখী প্রবণতা বেশি সময় স্থায়ী হয়নি। ১০ মিনিটের ব্যবধানে আবার ঊর্ধ্বমুখী হয় বাজার। এরপর বেলা সাড়ে ১১টা থেকে লেনদেনের শেষ পর্যন্ত সমানতলে বাড়তে থাকে সূচক। সেই সঙ্গে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ে।

এতে দিনভর ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৮১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১০৭টির। দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৬৭টির।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের এই দাম বাড়ার ফলে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ১৭ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৫১০ পয়েন্টে ওঠে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৫৪৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সবকটি মূল্যসূচকের উত্থানের পাশাপাশি ডিএসইতে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৪৬৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৪০৪ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৬২ কোটি ৯০ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে লাফার্জহোলসিমের শেয়ার। কোম্পানিটির ৪০ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা গ্রামীণফোনের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৩৫ লাখ টাকার। ১৪ কোটি ৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে এসএস স্টিল।

এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে- প্যরামাউন্ট টেক্সটাইল, এডিএন টেলিমক, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যাল, ন্যাশনাল পলিমার, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স এবং ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৭২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৭২৯ পয়েন্টে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৭ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেয়া ২৩২ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৯টির, কমেছে ৭৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির।

তারিখ সিলেক্ট করে খুজুন