মঙ্গলবার, ২৪-নভেম্বর-২০২০ ইং | দুপুর : ০২:৩২:০২ | আর্কাইভ

যোগ্য নেতৃত্ব গড়তে মেধার লালন ও বিকাশ করতে হবে: রফিকুল ইসলাম খান

তারিখ: ২০১৯-১১-১৩ ০৭:১৪:০৭ | ক্যাটেগরী: রাজনীতি | পঠিত: ১২৪ বার

ঢাকা ভয়েস: বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান বলেন, সৎ সমৃদ্ধ দেশ গড়তে যোগ্য ও আদর্শীক নেতৃত্ব অপরিহার্য। আর এসব গুন অজর্ন করতে হলে মেধার লালন ও বিকাশ সাধন করা অপরিহার্য। কিন্তু বর্তমান সরকার ও তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী মেধা বিকাশে সহায়তার বদলে উল্টো ছাত্রসমাজের উপর যে বর্বরতা ও নির্যাতন চালিয়েছে তা নজীরবিহীন। 

তিনি আজ রাজধানীর এক মিলনায়তনে ছাত্রশিবিরের উদ্যোগে সাথী ও সদস্যদের মেধা যাচাই পরিক্ষার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। কেন্দ্রীয় সভাপতি ড. মোবারক হোসাইনের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি জেনারেল সিরাজুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক তাসনিম আলম, নূরুল ইসলাম বুলবুল।

রফিকুল ইসলাম খান বলেন, সবাই এক বাক্যে স্বীকার করে যে, আগামীর বাংলাদেশের কারিগর তরুণ ও যুব সমাজ। তাদের মেধাকে সঠিক পরিচর্যায় গড়ে তোলার উপর নির্ভর করবে জাতির সফলতা ও ব্যর্থতা।  তাদের  কিন্তু প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় উপযুক্ত পরিচর্যার অভাব ও প্রতি পরিবেশে কাঙ্খিত নাগরীক তৈরী করা দুস্কর। তরুণ ও যুবসমাজ একটি জাতির অমূল্য সম্পদ হলেও এদেশে তাদের প্রতি যে বৈষম্য ও অধিকার বঞ্চিত করা হচ্ছে তা নজিরবিহীন। রাষ্ট্রীয় শক্তি ও দলীয় সন্ত্রাসীদের দ্বারা ছাত্রসমাজের উপর যে নিপীড়ণ চালানো হয়েছে তা লজ্জাজনক। সম্প্রতি জঙ্গিবাদী সন্ত্রাসী সংগঠন ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের কর্তৃক বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আববার হত্যাকান্ড জাতিকে স্তম্ভিত করে দিয়েছে। ছাত্রসমাজের উপর প্রতিটি আঘাত ও বঞ্চনা দেশবাসীর হৃদয়ে ক্ষত সৃষ্টি করেছে। দেশবাসী ও ছাত্রসমাজ এ বর্বরতা কখনোই ভূলে যাবে না।

সভাপতির বক্তব্যে ড:মোবারক হোসাইন বলেন, শত শঙ্কার মধ্যেও আমরা আশাহত নই। ছাত্রশিবির তরুণ ও যুবকদের নিয়ে কাজ করছে। ছাত্রশিবির গতানুগতিক কোন ছাত্র সংগঠন নয় বরং বিকল্প শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যাবস্থা যখন সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার জন্য মেধা ও নৈতিকতা সমন্বয়ে যোগ্যতা সম্পন্ন নাগরিক তৈরিতে ব্যর্থ। ছাত্রশিবির তখন জাতির সেই কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জনে এগিয়ে চলছে। যার আরেকটি প্রমাণ আজকের এই আয়োজন। ছাত্রশিবির দৃঢ় ভাবে বিশ্বাস করে, কথার ফুলঝুড়ি দিয়ে কাঙ্খিত সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয়। এ জন্য প্রয়োজন সৎ ও যোগ্যতা সম্পন্ন নেতৃত্ব সৃষ্টি। আর সেই নাগরীক ও নেতৃত্ব সৃষ্টির জন্যই ছাত্রশিবির তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে এবং রাখবে ইনশাআল্লাহ। 

তারিখ সিলেক্ট করে খুজুন