মঙ্গলবার, ১১-ডিসেম্বর-২০১৮ ইং | রাত : ০১:১৬:১০ | আর্কাইভ

নতুন মাত্রা নিয়ে জয়ার ‘বিজয়া’

তারিখ: ২০১৮-১১-২৭ ০৭:৪৮:৪২ | ক্যাটেগরী: খেলা | পঠিত: ১২ বার

সীমান্ত-সংলগ্ন এলাকার একজন হিন্দু বিধবা পদ্মা। অল্প বয়সে বিধবা হওয়ায় তাঁর আবার বিয়ে হয় গণেশ মণ্ডলের সঙ্গে। এরই মধ্যে ইছামতী নদীতে দুর্গা নিরঞ্জনের সময় নাসির নামের এক ব্যক্তি নদীতে পড়ে যায়। সে চোরাকারবারি। ভাসতে ভাসতে চলে আসে বাংলাদেশে। তার প্রাণ রক্ষা করে পদ্মা। নিজের বাড়িতে নাসিরকে আশ্রয় দেয়। নাসিরের সঙ্গে পদ্মার ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পদ্মা চেষ্টা করে, কীভাবে নাসিরকে ভারতে ফেরত পাঠানো যায়। কিন্তু এরই মধ্যে তিনজনের জীবনে আসে নানা পরিবর্তন। ‘বিসর্জন’ ছবির গল্প যেখানে শেষ হয়েছিল, ঠিক সেই জায়গা থেকে শুরু হয়েছে ‘বিজয়া’ ছবির গল্প। গতকাল সোমবার কলকাতায় ‘বিসর্জন’ ছবির সিক্যুয়েল ‘বিজয়া’র পোস্টার উদ্বোধন করা হলো। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ছিলেন ছবির দুই অভিনয়শিল্পী আবির চট্টোপাধ্যায় ও জয়া আহসান এবং পরিচালক ও অভিনয়শিল্পী কৌশিক গাঙ্গুলি। ছিলেন গৌতম ঘোষ।‘বিজয়া’ ছবির পোস্টার লঞ্চ অনুষ্ঠানে জয়া আহসান

পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলি বললেন, ‘গল্পের চরিত্রের কোনো পরিবর্তন হয়নি, কিন্তু দেশ জায়গা বদলে গেছে। পদ্মা, নাসির আর গণেশ মণ্ডলের জীবনে সংকট আরও ঘনীভূত হয়েছে। আমার মনে হয়, “বিসর্জন” ছবি থেকে “বিজয়া” অনেকটাই এগিয়ে থাকবে। এখানে অভিনয় আর গল্প বলার ধরন একেবারই আলাদা।’

জয়া আহসান বলেন, ‘“বিসর্জন” ছবিতে চরিত্রগুলোকে যেভাবে দেখেছি, “বিজয়া” ছবিতে দেখব তারা এত দিন পর কোথায় আছে, কীভাবে আছে, তাদের জীবনের কী কী পরিবর্তন ঘটেছে। “বিসর্জন” ছবিতে অনেক প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়নি। কিন্তু “বিজয়া” ছবিতে সেসব প্রশ্নের উত্তর সামনে নিয়ে আসছি। ছবিতে গল্পের অনেক নতুন দিক রয়েছে, যা দর্শক পছন্দ করবেন।’
‘বিজয়া’ ছবির পোস্টার লঞ্চ অনুষ্ঠানে আবির চট্টোপাধ্যায়, জয়া আহসান, কৌশিক গাঙ্গুলি ও গৌতম ঘোষ
‘বিজয়া’ ছবির পোস্টার লঞ্চ অনুষ্ঠানে আবির চট্টোপাধ্যায়, জয়া আহসান, কৌশিক গাঙ্গুলি ও গৌতম ঘোষ
এর আগে জয়া তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘বিসর্জন আমার প্রাণের অত্যন্ত কাছাকাছি একটি চলচ্চিত্র। পদ্মা থেকে শুরু করে নাসির আলী, গণেশ মণ্ডল—প্রতিটি চরিত্র এখনো উজ্জ্বল বাঙালির মননে। কিন্তু কিছু কিছু গল্প হঠাৎ শেষ হয়ে যায় না। তাই পদ্মা, নাসির আলী, গণেশ মণ্ডল আবার ফিরছে বড় পর্দায়। আমার বিশ্বাস, “বিসর্জন” ছবির মতো “বিজয়া” আপনাদের সবার মন ছুঁয়ে যাবে।’

‘বিসর্জন’ ছবিটি ভারতে মুক্তি পেয়েছিল গত বছরের ১৪ এপ্রিল। ভারতের ৬৪তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা বাংলা ছবি হয়েছে ‘বিসর্জন’। এ ছাড়া এই ছবির জন্য জিও ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস পেয়েছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। এই ছবির জন্য তিনি সমালোচক এবং জনপ্রিয়-দুই ক্যাটাগরিতেই ‘সেরা অভিনেত্রী’র মনোনয়ন পেয়েছিলেন। তবে পুরস্কার জিতেছেন জনপ্রিয় বিভাগে। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি বিকেলে কলকাতার সায়েন্স সিটি মিলনায়তনে ‘জিও ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস (পূর্ব) ২০১৮’ প্রদান করা হয়।

তারিখ সিলেক্ট করে খুজুন