ঢাকা ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলবেন ওয়ার্নার

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:০৪:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ১০৪ বার পড়া হয়েছে

সময়টা তার পক্ষে যাচ্ছিলো না অনেকদিন ধরে। ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাটিং সমালোচকদের ছুরির নিচে। তবে ধারাবাহিকভাবে রান করতে না পারলেও টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও অ্যাশেজের প্রথম দুই টেস্টের অস্ট্রেলিয়া দলে ছিলেন ওয়ার্নার।

সিডনিতে হতে যাওয়া পাকিস্তান সিরিজের শেষ ম্যাচ দিয়েই ১৩ বছরের টেস্ট ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন ওয়ার্নার। তিনি বলেন, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও অ্যাশেজে ভালো করে যদি পাকিস্তান সিরিজে সুযোগ পাই, তাহলে সেখানেই টেস্ট থেকে সরে দাড়াব। আমি একদম পাকাপাকি বলতে পারি (এরপর) ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ খেলব না।

টেস্ট থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেও অস্ট্রেলিয়ার হয়ে অন্য দুই সংস্করণে ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলতে চান ওয়ার্নার, ‘সব সময়ই বলে এসেছি, আমার শেষ ম্যাচ আমি ২০২৪ বিশ্বকাপে খেলব।’

ঘরের মাঠে টেষ্ট সিরিজ শুরু হতে এখন দুই সপ্তাহ বাকি থাকলেও প্রথম টেস্টের জন্য দল ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া। পার্থ টেস্টের স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছেন ওয়ার্নার। সুযোগ পাওয়ায় তাই বলা যায় টেস্ট ক্যারিয়ারের শেষের শুরুটা করতে যাচ্ছেন তিনি।

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়াকে চ্যাম্পিয়ন করার পথে ৫৩৫ রানে দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হলেও টেস্টে অনেক দিন ধরেই ছন্দে নেই ওয়ার্নার। ২০২০ সালের পর মাত্র একটি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। ছন্দের পড়তির কারণে অন্যদের ভাবা শুরু করেছে দল। তবে অবসরের ঘোষণা আগে দেওয়ায় হয়তো আরেকটি সিরিজে তার ওপরে ভরসা রাখছে অস্ট্রেলিয়া।

ওয়ার্নারের শেষের শুরুর টেস্টে প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়া দলে সুযোগ পেয়েছেন ল্যান্স মরিস। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার এই পেসারকে অবশ্য একাদশে সুযোগ পেতে বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। কারণ দীর্ঘ সংস্করণের ক্রিকেটে অজিদের হয়ে সেরা ছন্দে থাকা মিচেল স্টার্ক, জশ হ্যাজলউডরা আছেন। সঙ্গে অধিনায়ক প্যাট কামিন্স তো আছেনই।

১৪ ডিসেম্বর পার্থে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলবে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান। পার্থ টেস্ট শেষে ২৬ ডিসেম্বর বক্সিং ডে টেস্ট খেলবে দুই দল। আর সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্ট সিডনিতে ৩ জানুয়ারি শুরু হবে। সিডনির টেস্টটিই ওয়ার্নারের ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট হবে।

ট্যাগস :

ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলবেন ওয়ার্নার

আপডেট সময় ০৬:০৪:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

সময়টা তার পক্ষে যাচ্ছিলো না অনেকদিন ধরে। ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাটিং সমালোচকদের ছুরির নিচে। তবে ধারাবাহিকভাবে রান করতে না পারলেও টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও অ্যাশেজের প্রথম দুই টেস্টের অস্ট্রেলিয়া দলে ছিলেন ওয়ার্নার।

সিডনিতে হতে যাওয়া পাকিস্তান সিরিজের শেষ ম্যাচ দিয়েই ১৩ বছরের টেস্ট ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন ওয়ার্নার। তিনি বলেন, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ও অ্যাশেজে ভালো করে যদি পাকিস্তান সিরিজে সুযোগ পাই, তাহলে সেখানেই টেস্ট থেকে সরে দাড়াব। আমি একদম পাকাপাকি বলতে পারি (এরপর) ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ খেলব না।

টেস্ট থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেও অস্ট্রেলিয়ার হয়ে অন্য দুই সংস্করণে ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলতে চান ওয়ার্নার, ‘সব সময়ই বলে এসেছি, আমার শেষ ম্যাচ আমি ২০২৪ বিশ্বকাপে খেলব।’

ঘরের মাঠে টেষ্ট সিরিজ শুরু হতে এখন দুই সপ্তাহ বাকি থাকলেও প্রথম টেস্টের জন্য দল ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া। পার্থ টেস্টের স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছেন ওয়ার্নার। সুযোগ পাওয়ায় তাই বলা যায় টেস্ট ক্যারিয়ারের শেষের শুরুটা করতে যাচ্ছেন তিনি।

বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়াকে চ্যাম্পিয়ন করার পথে ৫৩৫ রানে দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হলেও টেস্টে অনেক দিন ধরেই ছন্দে নেই ওয়ার্নার। ২০২০ সালের পর মাত্র একটি সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। ছন্দের পড়তির কারণে অন্যদের ভাবা শুরু করেছে দল। তবে অবসরের ঘোষণা আগে দেওয়ায় হয়তো আরেকটি সিরিজে তার ওপরে ভরসা রাখছে অস্ট্রেলিয়া।

ওয়ার্নারের শেষের শুরুর টেস্টে প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়া দলে সুযোগ পেয়েছেন ল্যান্স মরিস। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার এই পেসারকে অবশ্য একাদশে সুযোগ পেতে বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। কারণ দীর্ঘ সংস্করণের ক্রিকেটে অজিদের হয়ে সেরা ছন্দে থাকা মিচেল স্টার্ক, জশ হ্যাজলউডরা আছেন। সঙ্গে অধিনায়ক প্যাট কামিন্স তো আছেনই।

১৪ ডিসেম্বর পার্থে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলবে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান। পার্থ টেস্ট শেষে ২৬ ডিসেম্বর বক্সিং ডে টেস্ট খেলবে দুই দল। আর সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্ট সিডনিতে ৩ জানুয়ারি শুরু হবে। সিডনির টেস্টটিই ওয়ার্নারের ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট হবে।