ঢাকা ০৩:১২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অক্টোবরে খাদ্যে রেকর্ড মূল্যস্ফীতি

অক্টোবরে খাদ্যে রেকর্ড মূল্যস্ফীতি

অক্টোবর মাসে নতুন করে খাদ্য খাতে মূল্যস্ফীতির হার বেড়ে ১২.৫৬ শতাংশ হয়েছে। সেপ্টেম্বরে যা ছিল ১২.৩৭ শতাংশ। গত বছরের অক্টোবরে মূলস্ফীতির হার ছিল ৮.৫০ শতাংশ। সোমবার (৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) মূল্যস্ফীতি নিয়ে চলতি বছরের অক্টোবর মাসের ভোক্তা মূল্যসূচকের (সিপিআই) হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করেছে।

তাতে মূল্যস্ফীতির এ চিত্র দেখা গেছে। বিবিএসের প্রতিবেদনে দেখা যায়, অক্টোবর মাসে দেশে গম মূল্যস্ফীতি ৯.৯৩ শতাংশ। মূল্যস্ফীতি ৯.৯৩ শতাংশের অর্থ হলো আগের বছরের অক্টোবরে যে পণ্য ১০০ টাকা কেনা হয়েছে এ বছরের অক্টোবরে তা কিনতে হয়েছে ১০৯ টাকা ৯৩ পয়সায়। এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘হ্যাঁ, মূল্যস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে।

সাথে বেড়েছে খাদ্য মূল্যস্ফীতিও। এর পেছনে অন্যতম প্রধান কারণ ডিম আর আলু। আলু আমদানি হচ্ছে। আর এখন অগ্রহায়ণ মাস, মাঠে অনেক সফল রয়েছে।আশা করছি সামনের দিনে মূল্যস্ফীতি কমে যাবে। হরতাল-অবরোধের কারণে পণ্য পরিবহন কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে, যা ভবির্ষ্যতে মূল্যস্ফীতিকে বাড়াতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা ব্যক্ত করেছেন।

 

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

অক্টোবরে খাদ্যে রেকর্ড মূল্যস্ফীতি

আপডেট সময় ০৯:২৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ নভেম্বর ২০২৩

অক্টোবর মাসে নতুন করে খাদ্য খাতে মূল্যস্ফীতির হার বেড়ে ১২.৫৬ শতাংশ হয়েছে। সেপ্টেম্বরে যা ছিল ১২.৩৭ শতাংশ। গত বছরের অক্টোবরে মূলস্ফীতির হার ছিল ৮.৫০ শতাংশ। সোমবার (৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) মূল্যস্ফীতি নিয়ে চলতি বছরের অক্টোবর মাসের ভোক্তা মূল্যসূচকের (সিপিআই) হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করেছে।

তাতে মূল্যস্ফীতির এ চিত্র দেখা গেছে। বিবিএসের প্রতিবেদনে দেখা যায়, অক্টোবর মাসে দেশে গম মূল্যস্ফীতি ৯.৯৩ শতাংশ। মূল্যস্ফীতি ৯.৯৩ শতাংশের অর্থ হলো আগের বছরের অক্টোবরে যে পণ্য ১০০ টাকা কেনা হয়েছে এ বছরের অক্টোবরে তা কিনতে হয়েছে ১০৯ টাকা ৯৩ পয়সায়। এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘হ্যাঁ, মূল্যস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে।

সাথে বেড়েছে খাদ্য মূল্যস্ফীতিও। এর পেছনে অন্যতম প্রধান কারণ ডিম আর আলু। আলু আমদানি হচ্ছে। আর এখন অগ্রহায়ণ মাস, মাঠে অনেক সফল রয়েছে।আশা করছি সামনের দিনে মূল্যস্ফীতি কমে যাবে। হরতাল-অবরোধের কারণে পণ্য পরিবহন কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে, যা ভবির্ষ্যতে মূল্যস্ফীতিকে বাড়াতে পারে বলেও তিনি আশঙ্কা ব্যক্ত করেছেন।