ঢাকা ০৬:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈশ্বরের দোহাই, গাজায় যুদ্ধবিরতি দিন : পোপ

ঈশ্বরের দোহাই, গাজায় যুদ্ধবিরতি দিন : পোপ

ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর টানা ১ মাসের অভিযানে তছনছ হয়ে যাওয়া গাজা উপত্যকায় যুদ্ধ বিরতি ঘোষণার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আকুল আহ্বান জানিয়েছেন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস।

রোববার এক বিবৃতে পোপ বলেন, ‘গাজা উপত্যকার বাসিন্দারা গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে খুবই ভয়াবহ, মারাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। আমি আপনাদের কাছে ঈশ্বরের নামে মিনতি জানাচ্ছি, দয়া করে সেখানে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করুন।’ ‘আমাদের উচিত শিশুদের কথা চিন্তা করা। গাজা ও ইউক্রেনের লাখ লাখ শিশুর ভাগ্য এই যুদ্ধের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে আমরা আসলে তাদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস করছি।’

গত ৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলের ভূখণ্ডে অতর্কিত হামলা চলানোর পর সেদিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। সেই অভিযান এখনও চলছে। হামাসের হামলায় ইসরায়েলে নিহত হয়েছেন ১ হাজার ৪০০ জনেরও বেশি ইসরায়েলি ও অন্যান্য দেশের নাগরিক। এছাড়া হামলার প্রথম দিনই ইসরায়েল থেকে অন্তত ২৩৪ জনকে জিম্মি হিসেবে গাজায় ধরে নিয়ে গেছে হামাস।

অন্যদিকে, ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর অভিযানে গাজায় নিহতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ৯ হাজার। এছাড়া বিমান বাহিনীর এক মাসের বোমা বর্ষণে উপত্যকার ইন্টারনেট, টেলিফোন ও মোবাইল সংযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, ১৯৫৩ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর এই প্রথম এত বড় মাত্রার সংঘাত হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের আল-আকসা অঞ্চলে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এবং জাতিসংঘ ইতমধ্যে গাজায় যুদ্ধবিরতির সোচ্চার আহ্বান জানিয়েছে। তবে ইসরায়েল জানিয়েছে, হামাসকে সম্পূর্ন নিশ্চিহ্ন করার আগ পর্যন্ত কোনো যুদ্ধবিরতি হবে না। রোববারের বিবৃতিতে পোপ বলেন, ‘আমি আগেও বলেছিলাম, আবারও বলছি— সংকট সমাধানের জন্য যুদ্ধের বিকল্প যত পন্থা রয়েছে, সব ব্যবহার করুন; এবং সহিংসতা থামান।

 

হল খোলার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ‘মুক্তি’ পেলেন জবির প্রাধ্যক্ষ

ঈশ্বরের দোহাই, গাজায় যুদ্ধবিরতি দিন : পোপ

আপডেট সময় ০৮:১০:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ নভেম্বর ২০২৩

ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর টানা ১ মাসের অভিযানে তছনছ হয়ে যাওয়া গাজা উপত্যকায় যুদ্ধ বিরতি ঘোষণার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আকুল আহ্বান জানিয়েছেন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস।

রোববার এক বিবৃতে পোপ বলেন, ‘গাজা উপত্যকার বাসিন্দারা গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে খুবই ভয়াবহ, মারাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। আমি আপনাদের কাছে ঈশ্বরের নামে মিনতি জানাচ্ছি, দয়া করে সেখানে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করুন।’ ‘আমাদের উচিত শিশুদের কথা চিন্তা করা। গাজা ও ইউক্রেনের লাখ লাখ শিশুর ভাগ্য এই যুদ্ধের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে আমরা আসলে তাদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস করছি।’

গত ৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলের ভূখণ্ডে অতর্কিত হামলা চলানোর পর সেদিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলের বিমান বাহিনী। সেই অভিযান এখনও চলছে। হামাসের হামলায় ইসরায়েলে নিহত হয়েছেন ১ হাজার ৪০০ জনেরও বেশি ইসরায়েলি ও অন্যান্য দেশের নাগরিক। এছাড়া হামলার প্রথম দিনই ইসরায়েল থেকে অন্তত ২৩৪ জনকে জিম্মি হিসেবে গাজায় ধরে নিয়ে গেছে হামাস।

অন্যদিকে, ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর অভিযানে গাজায় নিহতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ৯ হাজার। এছাড়া বিমান বাহিনীর এক মাসের বোমা বর্ষণে উপত্যকার ইন্টারনেট, টেলিফোন ও মোবাইল সংযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আন্তর্জাতিক রাজনীতি বিশ্লেষকদের মতে, ১৯৫৩ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর এই প্রথম এত বড় মাত্রার সংঘাত হচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের আল-আকসা অঞ্চলে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এবং জাতিসংঘ ইতমধ্যে গাজায় যুদ্ধবিরতির সোচ্চার আহ্বান জানিয়েছে। তবে ইসরায়েল জানিয়েছে, হামাসকে সম্পূর্ন নিশ্চিহ্ন করার আগ পর্যন্ত কোনো যুদ্ধবিরতি হবে না। রোববারের বিবৃতিতে পোপ বলেন, ‘আমি আগেও বলেছিলাম, আবারও বলছি— সংকট সমাধানের জন্য যুদ্ধের বিকল্প যত পন্থা রয়েছে, সব ব্যবহার করুন; এবং সহিংসতা থামান।