ঢাকা ১১:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হামাস অন্যতম প্রধান নেতা সিনওয়ারকে হত্যা করতে চায় ইসরাইল

হামাস অন্যতম প্রধান নেতা সিনওয়ারকে হত্যা করতে চায় ইসরাইল

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের অন্যতম প্রধান নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ারকে খুঁজে বের করে হত্যা করা হবে বলে জানিয়েছেন ইসরাইলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট। শনিবার এক সংবাদ সম্মেললে তিনি এ হুমকি দেন বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইসরাইল।

ইসরাইলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী যখন এমন বক্তব্য দিচ্ছিলেন, তখন গাজায় হামাসের সঙ্গে ইসরাইলি সেনাদের তীব্র লড়াই চলছিল। জেরুজালেম পোস্ট জানিয়েছে, শনিবারের লড়াইয়ে ইসরাইলের অন্তত ৯ জন সেনা নিহত হয়েছেন।

ইয়োভ গ্যালান্ট বলেন, গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাসের প্রধান নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ারকে ইসরাইলি বাহিনী খুঁজে বের করে হত্যা করবে। তিনি আরও বলেন, যুদ্ধের শেষে গাজায় কোনো হামাস থাকবে না, গাজা উপত্যকা থেকে ইসরাইলের জন্য কোনো নিরাপত্তা হুমকি থাকবে না এবং আমাদের নিরাপত্তার প্রয়োজনে যে কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়ার স্বাধীনতা থাকবে ইসরাইলের।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪টি ইসরাইলি সামরিক যান ধ্বংস করার দাবি জানিয়েছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। হামাসের সশস্ত্র শাখা আল কাসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানান।

শনিবার (৪ নভেম্বর) আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘হামাসের আল কাসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা বলেছেন, তাদের যোদ্ধারা গাজার উত্তরপশ্চিমাঞ্চল, দক্ষিণ গাজা,বেইত হানুনসহ গাজার দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলে ইসরাইলি সেনাদের সঙ্গে এখনো লড়াই করছেন। আবু ওবায়দা আরও বলেন, ‘তারা (হামাস যোদ্ধা) সাহসিকতা ও বীরত্বের সঙ্গে লড়াই করছেন। শত্রুদের সঙ্গে মুখোমুখি যুদ্ধ করে তাদের যানবাহন ধ্বংস করছে।

হামাস অন্যতম প্রধান নেতা সিনওয়ারকে হত্যা করতে চায় ইসরাইল

আপডেট সময় ১২:৩২:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ নভেম্বর ২০২৩

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের অন্যতম প্রধান নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ারকে খুঁজে বের করে হত্যা করা হবে বলে জানিয়েছেন ইসরাইলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট। শনিবার এক সংবাদ সম্মেললে তিনি এ হুমকি দেন বলে জানিয়েছে টাইমস অব ইসরাইল।

ইসরাইলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী যখন এমন বক্তব্য দিচ্ছিলেন, তখন গাজায় হামাসের সঙ্গে ইসরাইলি সেনাদের তীব্র লড়াই চলছিল। জেরুজালেম পোস্ট জানিয়েছে, শনিবারের লড়াইয়ে ইসরাইলের অন্তত ৯ জন সেনা নিহত হয়েছেন।

ইয়োভ গ্যালান্ট বলেন, গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাসের প্রধান নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ারকে ইসরাইলি বাহিনী খুঁজে বের করে হত্যা করবে। তিনি আরও বলেন, যুদ্ধের শেষে গাজায় কোনো হামাস থাকবে না, গাজা উপত্যকা থেকে ইসরাইলের জন্য কোনো নিরাপত্তা হুমকি থাকবে না এবং আমাদের নিরাপত্তার প্রয়োজনে যে কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়ার স্বাধীনতা থাকবে ইসরাইলের।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪টি ইসরাইলি সামরিক যান ধ্বংস করার দাবি জানিয়েছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। হামাসের সশস্ত্র শাখা আল কাসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানান।

শনিবার (৪ নভেম্বর) আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘হামাসের আল কাসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা বলেছেন, তাদের যোদ্ধারা গাজার উত্তরপশ্চিমাঞ্চল, দক্ষিণ গাজা,বেইত হানুনসহ গাজার দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলে ইসরাইলি সেনাদের সঙ্গে এখনো লড়াই করছেন। আবু ওবায়দা আরও বলেন, ‘তারা (হামাস যোদ্ধা) সাহসিকতা ও বীরত্বের সঙ্গে লড়াই করছেন। শত্রুদের সঙ্গে মুখোমুখি যুদ্ধ করে তাদের যানবাহন ধ্বংস করছে।