ঢাকা ০৭:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সহিংসতা, গ্রেপ্তার বা হয়রানি কোনোটাই চায় না জাতিসংঘ

সহিংসতা, গ্রেপ্তার বা হয়রানি কোনোটাই চায় না জাতিসংঘ

নির্বাচনের আগে কোনো সহিংসতা, গ্রেপ্তার বা হয়রানি দেখতে চায় না জাতিসংঘ। গতকাল বুধবার রাতে নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক এ কথা জানান।

ব্রিফিংয়ে প্রশ্নোত্তর পর্বে একজন বাংলাদেশি হিউম্যান রাইটস ওয়াচের বিবৃতির প্রসঙ্গ তোলেন। গত মঙ্গলবার পুলিশের গুলিতে তিনজনের মৃত্যুর অভিযোগ তুলে তিনি জানতে চান, জাতিসংঘ মহাসচিব কি বাংলাদেশের পরিস্থিতি জানেন? জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র বলেন, ‘অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তার কথা আমরা অত্যন্ত স্পষ্টভাবে বলেছি।

আমরা এই পর্যায়ে কোনো সহিংসতা বা অযৌক্তিক গ্রেপ্তার বা হয়রানি না দেখার প্রয়োজনীয়তার কথাও বলেছি। এর আগে গতকাল বুধবার বাংলাদেশে চলমান রাজনৈতিক সংঘাত নিয়ে জাতিসংঘের বিবৃতির আপত্তি জানায় সরকার। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনারের বিবৃতিতে উল্লিখিত তথ্য সঠিক নয়। বাংলাদেশ সরকার ত্রুটিপূর্ণ এই বিবৃতির প্রতিবাদ জানাবে।

গত রাতেই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বলেছে, ‘বাংলাদেশ সরকার আশা করছে, জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনারের দপ্তর তাদের আগের বিবৃতি সংশোধন করে সঠিক তথ্য তুলে ধরবে। না হলে প্রতিষ্ঠানটি গ্রহণযোগ্যতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা হারাবে।

হল খোলার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ‘মুক্তি’ পেলেন জবির প্রাধ্যক্ষ

সহিংসতা, গ্রেপ্তার বা হয়রানি কোনোটাই চায় না জাতিসংঘ

আপডেট সময় ১১:৪৬:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩

নির্বাচনের আগে কোনো সহিংসতা, গ্রেপ্তার বা হয়রানি দেখতে চায় না জাতিসংঘ। গতকাল বুধবার রাতে নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক এ কথা জানান।

ব্রিফিংয়ে প্রশ্নোত্তর পর্বে একজন বাংলাদেশি হিউম্যান রাইটস ওয়াচের বিবৃতির প্রসঙ্গ তোলেন। গত মঙ্গলবার পুলিশের গুলিতে তিনজনের মৃত্যুর অভিযোগ তুলে তিনি জানতে চান, জাতিসংঘ মহাসচিব কি বাংলাদেশের পরিস্থিতি জানেন? জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র বলেন, ‘অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তার কথা আমরা অত্যন্ত স্পষ্টভাবে বলেছি।

আমরা এই পর্যায়ে কোনো সহিংসতা বা অযৌক্তিক গ্রেপ্তার বা হয়রানি না দেখার প্রয়োজনীয়তার কথাও বলেছি। এর আগে গতকাল বুধবার বাংলাদেশে চলমান রাজনৈতিক সংঘাত নিয়ে জাতিসংঘের বিবৃতির আপত্তি জানায় সরকার। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনারের বিবৃতিতে উল্লিখিত তথ্য সঠিক নয়। বাংলাদেশ সরকার ত্রুটিপূর্ণ এই বিবৃতির প্রতিবাদ জানাবে।

গত রাতেই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বলেছে, ‘বাংলাদেশ সরকার আশা করছে, জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনারের দপ্তর তাদের আগের বিবৃতি সংশোধন করে সঠিক তথ্য তুলে ধরবে। না হলে প্রতিষ্ঠানটি গ্রহণযোগ্যতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা হারাবে।