ঢাকা ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সমাজ পরিবর্তনে মননশীল প্রকাশনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে-শিবির সভাপতি

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজিবুর রহমান বলেন, “দ্বীনের আলোকে সমৃদ্ধ সমাজ বিনির্মাণে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। একটি সমাজ পরিবর্তনে মননশীল প্রকাশনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।”

তিনি রাজধানীর এক মিলনায়তনে ছাত্রশিবির প্রকাশিত ২০২৪ সালের প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রকাশনাসামগ্রীর উদ্বোধকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন। কেন্দ্রীয় প্রকাশনা সম্পাদক সিবগাতুল্লাহর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সেক্রেটারি জেনারেল মঞ্জুরুল ইসলাম এবং সেক্রেটারিয়েট সদস্যবৃন্দ।

শিবির সভাপতি বলেন, “আমরা আল্লাহর জমিনে আল্লাহ দ্বীন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে একটি সমাজ ও রাষ্ট্র পরিবর্তনের আন্দোলন করছি। আমরা এ পরিবর্তনের কাজটি করছি মানুষের মধ্যে জেঁকে বসা জাহেলিয়াত ঝেড়ে ফেলে সেখানে ইসলাম প্রবেশ করিয়ে মানুষের জীবন পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে। সমাজ পরিবর্তনের এ কাজের জন্য মানুষের মন, মনন ও চিন্তার পরিবর্তনের লক্ষ্যে নানা রকম দাওয়াতি উপকরণ তৈরি করা ছাত্রশিবিরের অন্যতম কাজ। তারই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা নতুন নতুন প্রকাশনা নিয়ে হাজির হয়েছি।

ছাত্রশিবিরের সর্বস্তরের জনশক্তির কাজ হলো এসব প্রকাশনা ছড়িয়ে দেওয়া। কারণ, বর্তমানে ইসলামবিদ্ধেষী, পৌত্তলিক ও নাস্তিক্যবাদী শিক্ষার প্রসার ঘটানো হচ্ছে। এর বিপরীতে ইসলামী শিক্ষাব্যবস্থার সোনালি অতীত, উম্মাহর চেতনা ও গৌরবময় আত্মপরিচয় সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে জানানোর দিকটি এবারের প্রকাশনায় প্রধান্য পেয়েছে। তা ছাড়া সবগুলো প্রকাশনাই গবেষণাকেন্দ্রিক, তথ্যবহুল ও দৃষ্টিনন্দন, যা মননশীলতাকে ফুটিয়ে তুলেছে। এ বছর ছাত্রশিবির বিশেষ প্রকাশনা ‘টেবিল ইয়ার প্লানার’ প্রকাশ করেছে, যা পরিকল্পিত জীবনযাপনে অভ্যস্ত করতে সহায়তা করবে। আমরা আশা করি, সবাই বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা এ প্রকাশনাকে সানন্দে গ্রহণ করবে, ইনশাআল্লাহ।”

সেক্রেটারি জেনারেল মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, “ছাত্রশিবিরের এ আয়োজনটি নতুন বছরের একটি ইমেজ নিয়ে আসে এবং চিন্তায় নতুনত্ব এনে দেয়। ছাত্রশিবিরের প্রকাশনাগুলো শুধু ছাত্রশিবিরের জনশক্তিই নয়; বরং সর্বস্তরের জনগণের মাঝে বিশেষ করে ইসলামপ্রিয় সকলের মাঝে প্রভাব সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। ছাত্রশিবিরের প্রকাশনার অনুকরণে অনেক দল ও সংগঠন প্রকাশনা তৈরি করছে। ছাত্রশিবিরের প্রকাশনাগুলো বরাবরই সর্বস্তরের মানুষের মাঝে ইসলামের সুমহান আদর্শকে তুলে ধরে। যা  প্রত্যাশিত জাতি গঠনে ভূমিকা পালন করছে। আমাদের নতুন প্রজন্মকে পরিকল্পিতভাবে ইসলামবিরোধী বার্তা দেওয়া হচ্ছে। তার পাল্টা জবাবে ছাত্রশিবিরের প্রকাশনা মুসলিম জাতি ও সভ্যতার সমৃদ্ধ ইতিহাসকে তুলে ধরার চেষ্টা করেছে।  আমাদের সকলের উচিত এই তথ্যসমৃদ্ধ প্রকাশনাগুলো নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেওয়া।”

উল্লেখ্য, প্রতিবছরই নতুন বছরে জন্য আকর্ষণীয় প্রকাশনাসামগ্রী প্রকাশ করে ছাত্রশিবির। এবারের প্রকাশনার মধ্যে রয়েছে তিনপাতা ক্যালেন্ডার, একপাতা বড়ো ক্যালেন্ডার, একপাতা ছোটো ক্যালেন্ডার, বাংলা ডেস্ক ক্যালেন্ডার, ইংরেজি ডেস্ক ক্যালেন্ডার, ইংরেজি বড়ো ডায়েরি, বাংলা বড়ো ডায়েরি, ভি আই পি ডায়েরি, মাঝারি ডায়েরি ও পকেট ডায়েরি, ইসলাম ও সচেতনতামূলক বাণীসংবলিত স্টিকার প্রভৃতি। এ বছর ছাত্রশিবিরের প্রকাশনায় নতুন যোগ হয়েছে ‘টেবিল ইয়ার প্লানার’। নেতৃবৃন্দ এসব প্রকাশনাসামগ্রী ছাত্রসমাজ ও সুধী মহলের নিকট পৌঁছে দেওয়ার জন্য সংগঠনের সকল স্তরের জনশক্তির প্রতি আহ্বান জানান।

জনপ্রিয় সংবাদ

সমাজ পরিবর্তনে মননশীল প্রকাশনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে-শিবির সভাপতি

আপডেট সময় ০৮:০৭:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ নভেম্বর ২০২৩

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজিবুর রহমান বলেন, “দ্বীনের আলোকে সমৃদ্ধ সমাজ বিনির্মাণে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। একটি সমাজ পরিবর্তনে মননশীল প্রকাশনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।”

তিনি রাজধানীর এক মিলনায়তনে ছাত্রশিবির প্রকাশিত ২০২৪ সালের প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রকাশনাসামগ্রীর উদ্বোধকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন। কেন্দ্রীয় প্রকাশনা সম্পাদক সিবগাতুল্লাহর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সেক্রেটারি জেনারেল মঞ্জুরুল ইসলাম এবং সেক্রেটারিয়েট সদস্যবৃন্দ।

শিবির সভাপতি বলেন, “আমরা আল্লাহর জমিনে আল্লাহ দ্বীন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে একটি সমাজ ও রাষ্ট্র পরিবর্তনের আন্দোলন করছি। আমরা এ পরিবর্তনের কাজটি করছি মানুষের মধ্যে জেঁকে বসা জাহেলিয়াত ঝেড়ে ফেলে সেখানে ইসলাম প্রবেশ করিয়ে মানুষের জীবন পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে। সমাজ পরিবর্তনের এ কাজের জন্য মানুষের মন, মনন ও চিন্তার পরিবর্তনের লক্ষ্যে নানা রকম দাওয়াতি উপকরণ তৈরি করা ছাত্রশিবিরের অন্যতম কাজ। তারই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা নতুন নতুন প্রকাশনা নিয়ে হাজির হয়েছি।

ছাত্রশিবিরের সর্বস্তরের জনশক্তির কাজ হলো এসব প্রকাশনা ছড়িয়ে দেওয়া। কারণ, বর্তমানে ইসলামবিদ্ধেষী, পৌত্তলিক ও নাস্তিক্যবাদী শিক্ষার প্রসার ঘটানো হচ্ছে। এর বিপরীতে ইসলামী শিক্ষাব্যবস্থার সোনালি অতীত, উম্মাহর চেতনা ও গৌরবময় আত্মপরিচয় সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে জানানোর দিকটি এবারের প্রকাশনায় প্রধান্য পেয়েছে। তা ছাড়া সবগুলো প্রকাশনাই গবেষণাকেন্দ্রিক, তথ্যবহুল ও দৃষ্টিনন্দন, যা মননশীলতাকে ফুটিয়ে তুলেছে। এ বছর ছাত্রশিবির বিশেষ প্রকাশনা ‘টেবিল ইয়ার প্লানার’ প্রকাশ করেছে, যা পরিকল্পিত জীবনযাপনে অভ্যস্ত করতে সহায়তা করবে। আমরা আশা করি, সবাই বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা এ প্রকাশনাকে সানন্দে গ্রহণ করবে, ইনশাআল্লাহ।”

সেক্রেটারি জেনারেল মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, “ছাত্রশিবিরের এ আয়োজনটি নতুন বছরের একটি ইমেজ নিয়ে আসে এবং চিন্তায় নতুনত্ব এনে দেয়। ছাত্রশিবিরের প্রকাশনাগুলো শুধু ছাত্রশিবিরের জনশক্তিই নয়; বরং সর্বস্তরের জনগণের মাঝে বিশেষ করে ইসলামপ্রিয় সকলের মাঝে প্রভাব সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। ছাত্রশিবিরের প্রকাশনার অনুকরণে অনেক দল ও সংগঠন প্রকাশনা তৈরি করছে। ছাত্রশিবিরের প্রকাশনাগুলো বরাবরই সর্বস্তরের মানুষের মাঝে ইসলামের সুমহান আদর্শকে তুলে ধরে। যা  প্রত্যাশিত জাতি গঠনে ভূমিকা পালন করছে। আমাদের নতুন প্রজন্মকে পরিকল্পিতভাবে ইসলামবিরোধী বার্তা দেওয়া হচ্ছে। তার পাল্টা জবাবে ছাত্রশিবিরের প্রকাশনা মুসলিম জাতি ও সভ্যতার সমৃদ্ধ ইতিহাসকে তুলে ধরার চেষ্টা করেছে।  আমাদের সকলের উচিত এই তথ্যসমৃদ্ধ প্রকাশনাগুলো নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেওয়া।”

উল্লেখ্য, প্রতিবছরই নতুন বছরে জন্য আকর্ষণীয় প্রকাশনাসামগ্রী প্রকাশ করে ছাত্রশিবির। এবারের প্রকাশনার মধ্যে রয়েছে তিনপাতা ক্যালেন্ডার, একপাতা বড়ো ক্যালেন্ডার, একপাতা ছোটো ক্যালেন্ডার, বাংলা ডেস্ক ক্যালেন্ডার, ইংরেজি ডেস্ক ক্যালেন্ডার, ইংরেজি বড়ো ডায়েরি, বাংলা বড়ো ডায়েরি, ভি আই পি ডায়েরি, মাঝারি ডায়েরি ও পকেট ডায়েরি, ইসলাম ও সচেতনতামূলক বাণীসংবলিত স্টিকার প্রভৃতি। এ বছর ছাত্রশিবিরের প্রকাশনায় নতুন যোগ হয়েছে ‘টেবিল ইয়ার প্লানার’। নেতৃবৃন্দ এসব প্রকাশনাসামগ্রী ছাত্রসমাজ ও সুধী মহলের নিকট পৌঁছে দেওয়ার জন্য সংগঠনের সকল স্তরের জনশক্তির প্রতি আহ্বান জানান।