ঢাকা ০৫:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাটরে জামায়াত নেতাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম

নাটরের নলডাঙ্গায় খাজুরা ইউনিয়ন জামাতের আমীর মোঃ মোশারফ হোসেনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। গতকাল রাত ৯ টায়
হেলমেট পরিহিত কয়েকজন দুর্বৃত্ত রাত ৯ টার দিকে মাইক্রোতে উঠিয়ে এলাকার সাধনাগর বিলের মধ্যে উপর্যপুরি হামলা করে দুইহাত ও দুইপা ভেঙ্গে দিয়েছে।

মারা গেছে মনে করে রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে যায় হেলমেট বাহিনী । পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করেন। এর আগে বৃস্পতিবার রাত পৌনে ১০ টার দিকে উপজেলার নলডাঙ্গা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে উপজেলা জামাতের সেক্রেটারি ফজলুর রহমানের পথরোধ করে এলোপাতারি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যায় সেই হেলমেট বাহিনী।

এরও দুইদিন আগে উপজেলার নরশৎপুর গ্রামের জামায়াতে ইসলামীর ওর্য়াড নেতা আলাদ্দিন ডাক্তার একই কায়দায় কুপিয়েছে দৃবুর্ত্তরা ও এক সপ্তাহ আগে বাঁশিলা গ্রামের ইসলামী বক্তা নুরশাতকে পিঠিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে দৃর্বুত্তরা।

জামায়াত নেতারা মনে করছেন ,টার্গেট করে জামায়াত নেতাদের বিশেষ কায়দায় আক্রমণ করা হচ্ছে। এবং দৃর্বুত্তরা যেন চিহ্নিত না হয় সে জন্য সব জায়গায় হেলমেট ব্যবহার করছে তারা।

বেনজীর আহমেদকে আর সময় দেওয়া হবে না: দুদকের আইনজীবী

নাটরে জামায়াত নেতাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম

আপডেট সময় ১০:৫৫:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩

নাটরের নলডাঙ্গায় খাজুরা ইউনিয়ন জামাতের আমীর মোঃ মোশারফ হোসেনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। গতকাল রাত ৯ টায়
হেলমেট পরিহিত কয়েকজন দুর্বৃত্ত রাত ৯ টার দিকে মাইক্রোতে উঠিয়ে এলাকার সাধনাগর বিলের মধ্যে উপর্যপুরি হামলা করে দুইহাত ও দুইপা ভেঙ্গে দিয়েছে।

মারা গেছে মনে করে রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে যায় হেলমেট বাহিনী । পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করেন। এর আগে বৃস্পতিবার রাত পৌনে ১০ টার দিকে উপজেলার নলডাঙ্গা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে উপজেলা জামাতের সেক্রেটারি ফজলুর রহমানের পথরোধ করে এলোপাতারি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যায় সেই হেলমেট বাহিনী।

এরও দুইদিন আগে উপজেলার নরশৎপুর গ্রামের জামায়াতে ইসলামীর ওর্য়াড নেতা আলাদ্দিন ডাক্তার একই কায়দায় কুপিয়েছে দৃবুর্ত্তরা ও এক সপ্তাহ আগে বাঁশিলা গ্রামের ইসলামী বক্তা নুরশাতকে পিঠিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে দৃর্বুত্তরা।

জামায়াত নেতারা মনে করছেন ,টার্গেট করে জামায়াত নেতাদের বিশেষ কায়দায় আক্রমণ করা হচ্ছে। এবং দৃর্বুত্তরা যেন চিহ্নিত না হয় সে জন্য সব জায়গায় হেলমেট ব্যবহার করছে তারা।