ঢাকা ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার ৭ উইকেটে লঙ্কানদের হারাল আফগানরা

এবার ৭ উইকেটে লঙ্কানদের হারাল আফগানরা

এবারের বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের স্বপ্ন-যাত্রা চলছেই। ইংল্যান্ড, পাকিস্তানের পর এবার শ্রীলঙ্কাও হার মানল তাদের কাছে। আজ পুনেতে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে আফগানিস্তান। আগে ব্যাটিং করে আফগানিস্তানকে ২৪২ রানের লক্ষ্য দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা।

শুরুতে রহমানউল্লাহ গুরবাজের উইকেট হারালেও লক্ষ্যটা সহজেই তাড়া করে ফেলেছে আফগানরা। আরেক ওপেনার ইব্রাহিম জাদরানের ৩৯ রানের ইনিংসের সঙ্গে রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহীদি ও আজমত উল্লাহ ওমরজাইয়ের তিন ফিফটি বিশ্বকাপে আফগানদের তৃতীয় জয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে। শূন্য রানে গুরবাজের বিদায়ের পর দ্বিতীয় উইকেটে ইব্রাহিম ও রহমতের ৭৩ রানের জুটি। দিলশান মাধুশাষ্কার বলে আউট হয়ে ফেরেন ইব্রাহিম। তবে তৃতীয় উইকেটেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ছুটতে দেননি রহমত ও হাশমতউল্লাহ। এই জুটি থেকে আফগানিস্তান পায় ৫৮ রান। ৭৪ বলে ৬২ রান করে কাসুন রাজিথার বলে আউট হন রহমত। বিশ্বকাপে রহমতের এটি টানা দ্বিতীয় ফিফটি।

এরপর আফগানিস্তানকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। চতুর্থ উইকেটে আফগানদের জয়ের বন্দরে নিয়ে যান হাশমতউল্লাহ ও ওমরজাই। ১১১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে আফগানিস্তানকে আরেকটি দুর্দান্ত জয় এনে দিয়েছেন তাঁরা। ৭৪ বলে ৫৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন হাশমতউল্লাহ। তাঁর সঙ্গী ওমরজাই ৬৩ বলে ৭৩ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন।

এই জয়ে সেমিফাইনালের দৌড়ে ভালোভাবে টিকে রইল আফগানিস্তান। এর আগে ব্যাটারদের ব্যর্থতায় বড় সংগ্রহ পায়নি শ্রীলঙ্কা। শুরু করেও ইনিংসের পূর্ণতা দিতে পারেননি লঙ্কান ব্যাটাররা। সর্বোচ্চ ৪৬ রান এসেছে ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কার ব্যাট থেকে। এ ছাড়া কুশল মেন্ডিস ৩৯ ও সাদিরা সামারাবিক্রমা ৩৬ রানের ইনিংস খেলেছেন। আফগানদের সবচেয়ে সফল বোলার ফজলহক ফারুকি। চার উইকেট নিয়েছেন এই বাঁহাতি পেসার।

জনপ্রিয় সংবাদ

এবার ৭ উইকেটে লঙ্কানদের হারাল আফগানরা

আপডেট সময় ১০:৫৯:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

এবারের বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের স্বপ্ন-যাত্রা চলছেই। ইংল্যান্ড, পাকিস্তানের পর এবার শ্রীলঙ্কাও হার মানল তাদের কাছে। আজ পুনেতে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে আফগানিস্তান। আগে ব্যাটিং করে আফগানিস্তানকে ২৪২ রানের লক্ষ্য দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা।

শুরুতে রহমানউল্লাহ গুরবাজের উইকেট হারালেও লক্ষ্যটা সহজেই তাড়া করে ফেলেছে আফগানরা। আরেক ওপেনার ইব্রাহিম জাদরানের ৩৯ রানের ইনিংসের সঙ্গে রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহীদি ও আজমত উল্লাহ ওমরজাইয়ের তিন ফিফটি বিশ্বকাপে আফগানদের তৃতীয় জয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে। শূন্য রানে গুরবাজের বিদায়ের পর দ্বিতীয় উইকেটে ইব্রাহিম ও রহমতের ৭৩ রানের জুটি। দিলশান মাধুশাষ্কার বলে আউট হয়ে ফেরেন ইব্রাহিম। তবে তৃতীয় উইকেটেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ছুটতে দেননি রহমত ও হাশমতউল্লাহ। এই জুটি থেকে আফগানিস্তান পায় ৫৮ রান। ৭৪ বলে ৬২ রান করে কাসুন রাজিথার বলে আউট হন রহমত। বিশ্বকাপে রহমতের এটি টানা দ্বিতীয় ফিফটি।

এরপর আফগানিস্তানকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। চতুর্থ উইকেটে আফগানদের জয়ের বন্দরে নিয়ে যান হাশমতউল্লাহ ও ওমরজাই। ১১১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে আফগানিস্তানকে আরেকটি দুর্দান্ত জয় এনে দিয়েছেন তাঁরা। ৭৪ বলে ৫৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন হাশমতউল্লাহ। তাঁর সঙ্গী ওমরজাই ৬৩ বলে ৭৩ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন।

এই জয়ে সেমিফাইনালের দৌড়ে ভালোভাবে টিকে রইল আফগানিস্তান। এর আগে ব্যাটারদের ব্যর্থতায় বড় সংগ্রহ পায়নি শ্রীলঙ্কা। শুরু করেও ইনিংসের পূর্ণতা দিতে পারেননি লঙ্কান ব্যাটাররা। সর্বোচ্চ ৪৬ রান এসেছে ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কার ব্যাট থেকে। এ ছাড়া কুশল মেন্ডিস ৩৯ ও সাদিরা সামারাবিক্রমা ৩৬ রানের ইনিংস খেলেছেন। আফগানদের সবচেয়ে সফল বোলার ফজলহক ফারুকি। চার উইকেট নিয়েছেন এই বাঁহাতি পেসার।