ঢাকা ০৪:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কূটনীতিকদে ২৮ অক্টোবরের সহিংসতার ভিডিও দেখাল সরকার

কূটনীতিকদে ২৮ অক্টোবরের সহিংসতার ভিডিও দেখাল সরকার

২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশ ঘিরে বিএনপি যে সহিংসসতা ঘটিয়েছে তা বিদেশি কূটনীতিকদের জানিয়েছে সরকার। ঢাকায় বিদেশি কূটনৈতিক মিশন, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের সামনে সহিংসতার বর্ণনা, ক্ষতির বিষয়গুলো তুলে ধরেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনসহ সরকারের তিন মন্ত্রী ও এক উপদেষ্টা। পাশাপাশি বিএনপির সংশ্লিষ্টতায় মার্কিন প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা হিসেবে পরিচয় দেওয়া মিঞা জাহিদুল ইসলাম আরেফীর কর্মকাণ্ডের কথাও কূটনীতিকদের কাছে তুলে ধরা হয়েছে।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় ঢাকায় বিদেশি কূটনৈতিক মিশন, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফ করে এসব তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

ররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “২৮ অক্টোবর যা ঘটেছে তাতে আমরা মর্মাহত। যদিও অতীতে বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতার অভিজ্ঞতা থাকায়, আমরা অতোটা বিস্মিত হইনি।” তিনি বলেন, “দুঃখের সঙ্গে বলছি, আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম তারা বদলাবে, কিন্তু তারা পাল্টায়নি।”

রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন আমন্ত্রনে এতে অংশ নিতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস ও চীনা রাষ্ট্রদূতসহ ৪৫টি কূটনীতিক মিশনের রাষ্ট্রদূত বা প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে। ব্রিফিংয়ে ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ ঘিরে যেসব ঘটনা ঘটেছে তার সরকারি ভাষ্য আন্তজার্তিক সম্প্রদায়ের কাছে তুলে ধরেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় ২৮ অক্টোবরের সার্বিক ঘটনার অডিও-ভিডিও উপস্থাপন করা হয়।

ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, পররাষ্ট্র সচিব, মন্ত্রিসভার সিনিয়র সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ব্রিফিং শেষে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ২৮ অক্টোবর বিএনপির তাণ্ডবের ব্যাপারে বিদেশি কূটনীতিকদের বিস্তারিত জানানো হয়েছে। এ ছাড়া ঘটনার অডিও-ভিডিও লিংকও দেওয়া হয়েছে।

বেনজীর আহমেদকে আর সময় দেওয়া হবে না: দুদকের আইনজীবী

কূটনীতিকদে ২৮ অক্টোবরের সহিংসতার ভিডিও দেখাল সরকার

আপডেট সময় ০৭:২০:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশ ঘিরে বিএনপি যে সহিংসসতা ঘটিয়েছে তা বিদেশি কূটনীতিকদের জানিয়েছে সরকার। ঢাকায় বিদেশি কূটনৈতিক মিশন, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের সামনে সহিংসতার বর্ণনা, ক্ষতির বিষয়গুলো তুলে ধরেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনসহ সরকারের তিন মন্ত্রী ও এক উপদেষ্টা। পাশাপাশি বিএনপির সংশ্লিষ্টতায় মার্কিন প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা হিসেবে পরিচয় দেওয়া মিঞা জাহিদুল ইসলাম আরেফীর কর্মকাণ্ডের কথাও কূটনীতিকদের কাছে তুলে ধরা হয়েছে।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় ঢাকায় বিদেশি কূটনৈতিক মিশন, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফ করে এসব তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

ররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “২৮ অক্টোবর যা ঘটেছে তাতে আমরা মর্মাহত। যদিও অতীতে বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতার অভিজ্ঞতা থাকায়, আমরা অতোটা বিস্মিত হইনি।” তিনি বলেন, “দুঃখের সঙ্গে বলছি, আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম তারা বদলাবে, কিন্তু তারা পাল্টায়নি।”

রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন আমন্ত্রনে এতে অংশ নিতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস ও চীনা রাষ্ট্রদূতসহ ৪৫টি কূটনীতিক মিশনের রাষ্ট্রদূত বা প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে। ব্রিফিংয়ে ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ ঘিরে যেসব ঘটনা ঘটেছে তার সরকারি ভাষ্য আন্তজার্তিক সম্প্রদায়ের কাছে তুলে ধরেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় ২৮ অক্টোবরের সার্বিক ঘটনার অডিও-ভিডিও উপস্থাপন করা হয়।

ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, পররাষ্ট্র সচিব, মন্ত্রিসভার সিনিয়র সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ব্রিফিং শেষে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ২৮ অক্টোবর বিএনপির তাণ্ডবের ব্যাপারে বিদেশি কূটনীতিকদের বিস্তারিত জানানো হয়েছে। এ ছাড়া ঘটনার অডিও-ভিডিও লিংকও দেওয়া হয়েছে।