ঢাকা ১১:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গাজীপুরে পুলিশের গুলিতে গার্মেন্টশ্রমিক নিহত

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:০৪:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩
  • ৮১ বার পড়া হয়েছে

নিহত মো. রাসেল হাওলাদার

গাজীপুরে বৃদ্ধির দাবিতে গার্মেন্টস শ্রমিকদের আন্দোলন চলাকালে পুলিশের গুলিতে এক গার্মেন্টস শ্রমিক নিহত হয়েছে। নিহত শ্রমিকের নাম মো. রাসেল হাওলাদার (২৫)।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে গাজীপুরের গাছা থানাধীন মালেকের বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তিনি মালেকের বাড়ি এলাকায় ডিজাইন এক্সপ্রেস গার্মেন্টসের কর্মী ছিলেন।

গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রাসেলকে প্রথমে টঙ্গী শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিকেল সোয়া ৩টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।

গুলিবিদ্ধ রাসেলকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া তার সহকর্মী রঞ্জু মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা ডিজাইন এক্সপ্রেস লিমিটেডের কর্মী। রাসেল ইলেকট্রিশিয়ানের কাজ করতেন। আজ সোমবার কারখানা শ্রমিকরা বেতন বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করছিলেন। একপর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় পুলিশের একটি গুলি এসে রাসেলের শরীরে লাগে।

তিনি জানান, পরে আহত অবস্থায় রাসেলকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতাল এবং পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নিহত পোশাকশ্রমিক রাসেল ঝালকাঠি সদর উপজেলার আব্দুল হান্নানের ছেলে। তিনি বর্তমানে গাজীপুর বাইপাস এলাকায় মালেকের বাড়ি এলাকায় ভাড়া থাকতেন।

এর আগে সোমবার সকাল ৯টায় বেতন বাড়ানোর দাবিতে টানা সপ্তম দিনের মতো আন্দোলন শুরু করে পোশাকশ্রমিকরা। এতে যোগদেয় গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাসের আশপাশের এলাকার বিভিন্ন পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। এসময় কয়েকটি কারখানায় ভাঙচুরের পর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে মিছিল বের করেন তারা।

পরে পুলিশ লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করলে শ্রমিকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে মহাসড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন। তখন উত্তেজিত শ্রমিকরা একটি পিকআপে আগুন ধরিয়ে দেন। এতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

গাজীপুরে পুলিশের গুলিতে গার্মেন্টশ্রমিক নিহত

আপডেট সময় ০৫:০৪:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩

গাজীপুরে বৃদ্ধির দাবিতে গার্মেন্টস শ্রমিকদের আন্দোলন চলাকালে পুলিশের গুলিতে এক গার্মেন্টস শ্রমিক নিহত হয়েছে। নিহত শ্রমিকের নাম মো. রাসেল হাওলাদার (২৫)।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে গাজীপুরের গাছা থানাধীন মালেকের বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তিনি মালেকের বাড়ি এলাকায় ডিজাইন এক্সপ্রেস গার্মেন্টসের কর্মী ছিলেন।

গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রাসেলকে প্রথমে টঙ্গী শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিকেল সোয়া ৩টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।

গুলিবিদ্ধ রাসেলকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া তার সহকর্মী রঞ্জু মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা ডিজাইন এক্সপ্রেস লিমিটেডের কর্মী। রাসেল ইলেকট্রিশিয়ানের কাজ করতেন। আজ সোমবার কারখানা শ্রমিকরা বেতন বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করছিলেন। একপর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় পুলিশের একটি গুলি এসে রাসেলের শরীরে লাগে।

তিনি জানান, পরে আহত অবস্থায় রাসেলকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতাল এবং পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নিহত পোশাকশ্রমিক রাসেল ঝালকাঠি সদর উপজেলার আব্দুল হান্নানের ছেলে। তিনি বর্তমানে গাজীপুর বাইপাস এলাকায় মালেকের বাড়ি এলাকায় ভাড়া থাকতেন।

এর আগে সোমবার সকাল ৯টায় বেতন বাড়ানোর দাবিতে টানা সপ্তম দিনের মতো আন্দোলন শুরু করে পোশাকশ্রমিকরা। এতে যোগদেয় গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাসের আশপাশের এলাকার বিভিন্ন পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। এসময় কয়েকটি কারখানায় ভাঙচুরের পর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে মিছিল বের করেন তারা।

পরে পুলিশ লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করলে শ্রমিকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে মহাসড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করেন। তখন উত্তেজিত শ্রমিকরা একটি পিকআপে আগুন ধরিয়ে দেন। এতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।