ঢাকা ০৫:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপি নেতার বাড়িতে পুলিশের তল্লাশি, আতংঙ্কে স্ত্রীর মৃত্যু

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলা বিএনপির পল্লি উন্নয়নবিষয়ক সম্পাদক ইকরাম হোসেনের বাড়িতে পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে। এ সময় ওই নেতা বাড়িতে ছিলেন না। ছিলেন তাঁর স্ত্রী রেঞ্জুয়ারা বেগম (৪০)। অভিযানের সময় হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে ওই নেতার স্ত্রী মারা গেছেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই নেতা।

শনিবার (২৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে নগরকান্দা উপজেলার চরযশোরদী ইউনিয়নের দহিসারা গ্রামে এস এম ইকরাম হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ইকরাম হোসেন ভাঙ্গার কালামৃধা ইউনিয়নের দেওড়া উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও নগরকান্দা উপজেলা বিএনপির পল্লি উন্নয়নবিষয়ক সম্পাদক। স্ত্রী রেঞ্জুয়ারা বেগম স্থানীয় চাঁদহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। রেঞ্জুয়ারা বেগম এক ছেলে ও এক মেয়ের মা।

বিএনপি নেতা এস এম ইকরাম হোসেন বলেন, শনিবার রাত সোয়া ১১টা থেকে রাত ১১টা ২০ মিনিটের মধ্যে পুলিশের একটি দল তাঁর বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় বাড়িতে তাঁর স্ত্রী একাই ছিলেন। পুলিশ ঘরে ঢুকে তাঁকে খোঁজ করে ঘরের দরজা খুলে তছনছ করে। পুলিশ যখন ঘরে তছনছ করছিল, তখন তাঁর স্ত্রী ঘরের একটি সোফায় বসা ছিলেন। তছনছের দৃশ্য দেখে তাঁর স্ত্রী বসা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্ত্রীর এ অবস্থা দেখে পুলিশ পাশের বাড়ির রবীন ও তাঁর স্ত্রীকে ডেকে বলে এ বাড়িতে এক মহিলা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

এস এম ইকরাম হোসেন আরও বলেন, পরে তাঁর আত্মীয়স্বজন রেঞ্জুয়ারাকে একটি মাইক্রোবাসে করে পাশের মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিরাজ হোসেন বলেন, তল্লাশির নামে আতঙ্ক সৃষ্টি হতে পারে, এ–জাতীয় কোনো ঘটনা পুলিশ ঘটায়নি। আতঙ্কে কেউ মারা গেছেন বলে তাঁর জানা নেই।

বেনজীর আহমেদকে আর সময় দেওয়া হবে না: দুদকের আইনজীবী

বিএনপি নেতার বাড়িতে পুলিশের তল্লাশি, আতংঙ্কে স্ত্রীর মৃত্যু

আপডেট সময় ০১:৫৮:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২৩

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলা বিএনপির পল্লি উন্নয়নবিষয়ক সম্পাদক ইকরাম হোসেনের বাড়িতে পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে। এ সময় ওই নেতা বাড়িতে ছিলেন না। ছিলেন তাঁর স্ত্রী রেঞ্জুয়ারা বেগম (৪০)। অভিযানের সময় হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে ওই নেতার স্ত্রী মারা গেছেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই নেতা।

শনিবার (২৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে নগরকান্দা উপজেলার চরযশোরদী ইউনিয়নের দহিসারা গ্রামে এস এম ইকরাম হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ইকরাম হোসেন ভাঙ্গার কালামৃধা ইউনিয়নের দেওড়া উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও নগরকান্দা উপজেলা বিএনপির পল্লি উন্নয়নবিষয়ক সম্পাদক। স্ত্রী রেঞ্জুয়ারা বেগম স্থানীয় চাঁদহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। রেঞ্জুয়ারা বেগম এক ছেলে ও এক মেয়ের মা।

বিএনপি নেতা এস এম ইকরাম হোসেন বলেন, শনিবার রাত সোয়া ১১টা থেকে রাত ১১টা ২০ মিনিটের মধ্যে পুলিশের একটি দল তাঁর বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় বাড়িতে তাঁর স্ত্রী একাই ছিলেন। পুলিশ ঘরে ঢুকে তাঁকে খোঁজ করে ঘরের দরজা খুলে তছনছ করে। পুলিশ যখন ঘরে তছনছ করছিল, তখন তাঁর স্ত্রী ঘরের একটি সোফায় বসা ছিলেন। তছনছের দৃশ্য দেখে তাঁর স্ত্রী বসা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্ত্রীর এ অবস্থা দেখে পুলিশ পাশের বাড়ির রবীন ও তাঁর স্ত্রীকে ডেকে বলে এ বাড়িতে এক মহিলা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

এস এম ইকরাম হোসেন আরও বলেন, পরে তাঁর আত্মীয়স্বজন রেঞ্জুয়ারাকে একটি মাইক্রোবাসে করে পাশের মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিরাজ হোসেন বলেন, তল্লাশির নামে আতঙ্ক সৃষ্টি হতে পারে, এ–জাতীয় কোনো ঘটনা পুলিশ ঘটায়নি। আতঙ্কে কেউ মারা গেছেন বলে তাঁর জানা নেই।