ঢাকা ১১:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জাতিসংঘের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইসরাইলের

জাতিসংঘের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইসরাইলের

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে পাস হওয়া গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে ইসরাইল। জাতিসংঘের এই প্রস্তাবকে ‘জঘন্য’ বলে উল্লেখ করেছেন ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলি কোহেন। শুক্রবার গাজায় ‘মানবিক যুদ্ধবিরতির’ প্রস্তাবটি বিপুল ভোটে এগিয়ে থেকে সাধারণ পরিষদে গৃহীত হয়েছিল। খবর আনাদোলু এজেন্সি’র। ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলি কোহেন এক্সে (সাবেক টুইটার) বলেন, আমরা গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করছি। এটি একটি জঘন্য প্রস্তাব।

কোহেন জাতিসংঘের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানের পর বলেন, আমরা হামাসকে নির্মূল করতে চাই। যেভাবে নাৎসি ও আইএসকে নির্মূল করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তুরস্ক, ফিলিস্তিন, মিসর, জর্ডান, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ ৫০টি দেশ যুদ্ধবিরতির এ প্রস্তাব উপস্থাপন করে। এই প্রস্তাবটি ১২০/১৪ ভোটে পাস হয়েছে। ৪৫টি দেশ এই প্রস্তাবে ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল।

এই প্রস্তাবে, গাজায় বেসামরিক নাগরিকদের ওপর আগ্রাসনের নিন্দা করা হয়েছে। তাছাড়া সন্ত্রাসী কার্যক্রম ও নির্বিচারে আক্রমণ করা এবং পাল্টা-আক্রমণে উসকানি দেওয়ারও নিন্দা জানানো হয়েছে। জাতিসংঘের এই প্রস্তাবের মাধ্যমে সব পক্ষকে আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া এই প্রস্তাবে সহিংসতা বন্ধের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

গাজায় যুদ্ধবিরতিতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাসগাজায় যুদ্ধবিরতিতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাস সাধারণ পরিষদে উত্থাপিত প্রস্তাবে কোনো দেশের ভেটো ক্ষমতা নেই। তবে সেখানে গৃহীত প্রস্তাব বাস্তবায়নের কোনও আইনি বাধ্যবাধকতাও নেই, কিন্তু রাজনৈতিক গুরুত্ব রয়েছে। এর আগে, গত কয়েক দিনে ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে ফিলিস্তিন ও ইসরাইল ইস্যুতে একাধিক প্রস্তাব উত্থাপন করা হলেও তার কোনোটিই পাস হয়নি।

জনপ্রিয় সংবাদ

পিটার হাসকে হুমকিদাতা ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

জাতিসংঘের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইসরাইলের

আপডেট সময় ০১:৫৭:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২৩

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে পাস হওয়া গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে ইসরাইল। জাতিসংঘের এই প্রস্তাবকে ‘জঘন্য’ বলে উল্লেখ করেছেন ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলি কোহেন। শুক্রবার গাজায় ‘মানবিক যুদ্ধবিরতির’ প্রস্তাবটি বিপুল ভোটে এগিয়ে থেকে সাধারণ পরিষদে গৃহীত হয়েছিল। খবর আনাদোলু এজেন্সি’র। ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলি কোহেন এক্সে (সাবেক টুইটার) বলেন, আমরা গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করছি। এটি একটি জঘন্য প্রস্তাব।

কোহেন জাতিসংঘের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানের পর বলেন, আমরা হামাসকে নির্মূল করতে চাই। যেভাবে নাৎসি ও আইএসকে নির্মূল করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তুরস্ক, ফিলিস্তিন, মিসর, জর্ডান, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ ৫০টি দেশ যুদ্ধবিরতির এ প্রস্তাব উপস্থাপন করে। এই প্রস্তাবটি ১২০/১৪ ভোটে পাস হয়েছে। ৪৫টি দেশ এই প্রস্তাবে ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল।

এই প্রস্তাবে, গাজায় বেসামরিক নাগরিকদের ওপর আগ্রাসনের নিন্দা করা হয়েছে। তাছাড়া সন্ত্রাসী কার্যক্রম ও নির্বিচারে আক্রমণ করা এবং পাল্টা-আক্রমণে উসকানি দেওয়ারও নিন্দা জানানো হয়েছে। জাতিসংঘের এই প্রস্তাবের মাধ্যমে সব পক্ষকে আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া এই প্রস্তাবে সহিংসতা বন্ধের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

গাজায় যুদ্ধবিরতিতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাসগাজায় যুদ্ধবিরতিতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাস সাধারণ পরিষদে উত্থাপিত প্রস্তাবে কোনো দেশের ভেটো ক্ষমতা নেই। তবে সেখানে গৃহীত প্রস্তাব বাস্তবায়নের কোনও আইনি বাধ্যবাধকতাও নেই, কিন্তু রাজনৈতিক গুরুত্ব রয়েছে। এর আগে, গত কয়েক দিনে ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে ফিলিস্তিন ও ইসরাইল ইস্যুতে একাধিক প্রস্তাব উত্থাপন করা হলেও তার কোনোটিই পাস হয়নি।