ঢাকা ০৯:০৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জামায়াত নেতাকর্মীদের শাপলা চত্বর থেকে সরিয়ে দিলো পুলিশ

জামায়াত নেতাকর্মীদের শাপলা চত্বর থেকে সরিয়ে দিলো পুলিশ

পুলিশের অনুমতি না পেলেও আগের ঘোষণা অনুযায়ী আজ শনিবার (২৮ অক্টােবর) রাজধানীর শাপলা চত্বরে মহাসমাবেশ করবে জামায়াতে ইসলামী।

এদিকে, জামায়াতের কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে আজ সকাল ৮টার পর দলটির কিছু নেতাকর্মী জড়ো হন শাপলা চত্বরের দক্ষিণ পাশে। এ সময় পুলিশ দলটির নেতাকর্মীদের সরিয়ে দেয়। তারা একটু দূরে গলিতে অবস্থান নেন। তবে কোনো পক্ষই মারমুখী আচরণ করেনি।

এছাড়া শাপলা চত্বর এলাকার আশপাশের গলিতে জামায়াত সমর্থকদের উপস্থিতি দেখা গেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুরো এলাকা ব্যারিকেড দিয়ে রেখেছে পুলিশ। এছাড়া কাকরাইল, নাইটঙ্গেল মোড়, বিজয়নগর, ফকিরাপুল, রাজারবাগ, দৈনিক বাংলা, আরামবাগ ও মতিঝিল এলাকায় বিপুলসংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সতর্ক অবস্থানে দেখা গেছে।

এ বিষয়ে মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, সমাবেশের অনুমতি ছাড়া কোনো দলের সমবেত হওয়ার সুযোগ নেই। কেউ রাস্তায় অবস্থান করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এছাড়া ঢাকায় ২৮ অক্টোবর বড় দুই রাজনৈতিক দলের সমাবেশ ঘিরে যেকোনো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন প্রস্তুত রয়েছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই নেই: বাইডেন

জামায়াত নেতাকর্মীদের শাপলা চত্বর থেকে সরিয়ে দিলো পুলিশ

আপডেট সময় ১১:২৪:৩৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২৩

পুলিশের অনুমতি না পেলেও আগের ঘোষণা অনুযায়ী আজ শনিবার (২৮ অক্টােবর) রাজধানীর শাপলা চত্বরে মহাসমাবেশ করবে জামায়াতে ইসলামী।

এদিকে, জামায়াতের কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে আজ সকাল ৮টার পর দলটির কিছু নেতাকর্মী জড়ো হন শাপলা চত্বরের দক্ষিণ পাশে। এ সময় পুলিশ দলটির নেতাকর্মীদের সরিয়ে দেয়। তারা একটু দূরে গলিতে অবস্থান নেন। তবে কোনো পক্ষই মারমুখী আচরণ করেনি।

এছাড়া শাপলা চত্বর এলাকার আশপাশের গলিতে জামায়াত সমর্থকদের উপস্থিতি দেখা গেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুরো এলাকা ব্যারিকেড দিয়ে রেখেছে পুলিশ। এছাড়া কাকরাইল, নাইটঙ্গেল মোড়, বিজয়নগর, ফকিরাপুল, রাজারবাগ, দৈনিক বাংলা, আরামবাগ ও মতিঝিল এলাকায় বিপুলসংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সতর্ক অবস্থানে দেখা গেছে।

এ বিষয়ে মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, সমাবেশের অনুমতি ছাড়া কোনো দলের সমবেত হওয়ার সুযোগ নেই। কেউ রাস্তায় অবস্থান করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এছাড়া ঢাকায় ২৮ অক্টোবর বড় দুই রাজনৈতিক দলের সমাবেশ ঘিরে যেকোনো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রশাসন প্রস্তুত রয়েছে।