ঢাকা ১০:২৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কাকরাইলে ভবন থেকে বিএনপির ২০০ নেতাকর্মী আটক

কাকরাইলে ভবন থেকে বিএনপির ২০০ নেতাকর্মী আটক

রাজধানীর কাকরাইলে একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে পুলিশের ওপর ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। পরে ওই ভবনে অভিযান চালিয়ে বিএনপির প্রায় দুই শ নেতাকর্মীকে আটক করেছে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঘটনাস্থলে অভিযান শেষে এ কথা বলেন গোয়েন্দা প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। তিনি বলেন, মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে দুষ্কৃতকারীরা যেন কোনো ধরনের অঘটন ঘটাতে না পারে এজন্য পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে।

ঘটনাস্থলে আসামাত্র ১৫ থেকে ২০টি ককটেল পুলিশের ওপর নিক্ষেপ করা হয়। গোয়েন্দাপ্রধান বলেন, কাকরাইলের ওই ভবনের ভেতরে প্রবেশ করে দেখা যায়, ভবনটিতে কয়েক শ নেতাকর্মী দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে এসেছেন। ভবনের ভেতরে রড, লাঠি, ককটেল, চাল, ডাল ও ইটভাঙা পাওয়া যায়। পরে সেখান থেকে প্রায় দুই শ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। তাদের থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং মামলা হবে। সমাবেশকে কেন্দ্র করে তারা নাশকতা করতে চেয়েছিল কি না- জানতে চাইলে হারুন অর রশীদ বলেন, তারা যদি সমাবেশেই আসবে তাহলে রড ও ককটেল নিয়ে আদবে কেন? তাদের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল কি না- জানি না তবে তদন্ত করে দেখা হবে।

ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশ আহত হয়েছে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, অলরেডি দুজন পুলিশ সদস্য আহত হয়ে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে গেছেন। ডিবিপ্রধান আরো বলেন, আমরা খবর পেয়েছি শুধু কাকরাইলের এই ভবনটিই নয় এমন আরো ভবন আছে সেখানে অসংখ্য মানুষ অবস্থান করছে। সেই ভবনগুলোতেও আমরা অভিযান চালাব।

জনপ্রিয় সংবাদ

পিটার হাসকে হুমকিদাতা ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

কাকরাইলে ভবন থেকে বিএনপির ২০০ নেতাকর্মী আটক

আপডেট সময় ১১:১৫:১০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২৩

রাজধানীর কাকরাইলে একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে পুলিশের ওপর ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। পরে ওই ভবনে অভিযান চালিয়ে বিএনপির প্রায় দুই শ নেতাকর্মীকে আটক করেছে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঘটনাস্থলে অভিযান শেষে এ কথা বলেন গোয়েন্দা প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। তিনি বলেন, মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে দুষ্কৃতকারীরা যেন কোনো ধরনের অঘটন ঘটাতে না পারে এজন্য পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে।

ঘটনাস্থলে আসামাত্র ১৫ থেকে ২০টি ককটেল পুলিশের ওপর নিক্ষেপ করা হয়। গোয়েন্দাপ্রধান বলেন, কাকরাইলের ওই ভবনের ভেতরে প্রবেশ করে দেখা যায়, ভবনটিতে কয়েক শ নেতাকর্মী দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে এসেছেন। ভবনের ভেতরে রড, লাঠি, ককটেল, চাল, ডাল ও ইটভাঙা পাওয়া যায়। পরে সেখান থেকে প্রায় দুই শ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। তাদের থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং মামলা হবে। সমাবেশকে কেন্দ্র করে তারা নাশকতা করতে চেয়েছিল কি না- জানতে চাইলে হারুন অর রশীদ বলেন, তারা যদি সমাবেশেই আসবে তাহলে রড ও ককটেল নিয়ে আদবে কেন? তাদের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল কি না- জানি না তবে তদন্ত করে দেখা হবে।

ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশ আহত হয়েছে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, অলরেডি দুজন পুলিশ সদস্য আহত হয়ে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে গেছেন। ডিবিপ্রধান আরো বলেন, আমরা খবর পেয়েছি শুধু কাকরাইলের এই ভবনটিই নয় এমন আরো ভবন আছে সেখানে অসংখ্য মানুষ অবস্থান করছে। সেই ভবনগুলোতেও আমরা অভিযান চালাব।