ঢাকা ০৫:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
যশোর তানযীমুল উম্মাহর দিনব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে যাকাতের ভূমিকা নিয়ে ছওয়াব ফাউন্ডেশনের সেমিনার কিশোরকণ্ঠ জাতীয় সায়েন্স ফিকশন লেখা প্রতিযোগিতা ২০২৩-এর পুরস্কার প্রদান কারামুক্ত নেতাদের নিয়ে রাজধানীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল হস্তান্তর অনুষ্ঠিত আমার নাম শুনলেই প্রধানমন্ত্রী বলেন আমি সুদখোর: ড. মুহাম্মদ ইউনূস যুক্তরাষ্ট্রের উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপি বৈঠক ‘বঙ্গবন্ধু’-অ্যাপ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিএনপির সময়ে ১৮ ঘণ্টা লোডশেডিং থাকত-ওবায়দুল কাদের আমরা গৃহপালিত দল হয়ে গেছি : জিএম কাদের

দৃষ্টিনন্দন সড়ক টানেল উদ্বোধন বান্দরবানে

দৃষ্টিনন্দন সড়ক টানেল উদ্বোধন বান্দরবানে

দেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশে বান্দরবানে নির্মিত হয়েছে আধুনিক সড়ক টানেল। শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত ৫০০ ফুট লম্বা টানেল সড়কের ফলক উন্মোচন করেন পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। পার্বত্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘রাস্তার দুই পাশের পাহাড় রক্ষা, যানজট নিরসন, দূরত্ব কমানো ও পর্যটন জেলা বান্দরবানের সৌন্দর্য পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে বান্দরবানে দৃষ্টিনন্দন টানেলের উদ্বোধন করা হয়েছে।’

শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) বান্দরবান শহরে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে বান্দরবান বাস টার্মিনাল টানেল এবং বান্দরবান জেলা পরিষদের বাস্তবায়নে ১০টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন অনুষ্ঠানের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এসব কথা বলেন। এ সময় পার্বত্যমন্ত্রী ৫০০ফুট দীর্ঘ ও আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন টানেল ঘুরে দেখেন। পার্বত্যমন্ত্রী বলেন, একসময় পর্যটকগণ বান্দরবানের বাস টার্মিনালে আসা-যাওয়ার পথে যাতায়াতে দুর্ভোগের শিকার হতেন। পর্যটকদের জন্য সুন্দর ও সহজ যোগাযোগ ব্যবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বান্দরবানে সাড়ে চার একর জায়গা নিয়ে বাস টার্মিনাল গড়ে তোলা হয়।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণেই বান্দরবানের উপজেলাগুলোতে হাসপাতাল নির্মাণ, উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, ব্রীজ, কালভার্ট, রাস্তা-ঘাট, ১৪টি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, ফায়ার সার্ভিস সেন্টার নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ পৌঁছানো হয়েছে।

এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম এলাকার ৪২ হাজার ৫০০ পরিবারের মাঝে সোলার প্যানেলের মাধ্যমে বিদ্যুতের আলো ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হয়েছে। বান্দরবানের প্রতিটি উপজেলা ও ইউনিয়নে প্রশস্ত সড়ক হয়েছে পাশাপাশি শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ সকলক্ষেত্রে পার্বত্য এলাকা এখন আগের চাইতে অনেক বেশি সুন্দর ও পর্যটকবান্ধব হয়েছে। প্রত্যেক উপজেলায় সরকারের খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকার ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে বই দিয়েছে, উপবৃত্তি দিয়েছে, সরকারি নানান ভাতাদি দিয়েছে। কৃষকদের মাঝে পাওয়ার টিলার ও আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতি ও নানা উপকরণ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। বান্দরবানে ১২টি সম্প্রদায়ের মানুষ মিলে ভালোবাসা ও সম্প্রীতির বন্ধন গড়ে তোলা হয়েছে।

পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের সুখ ও স্বাছন্দ্যের জন্য সকল কিছু করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। এ সময় পার্বত্যমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে সবাইকে আওয়ামীলীগ সরকারের পাশে থাকার এবং দেশের উন্নয়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে যাওয়ায় আহ্বান জানান। বান্দরবান জেলা পরিষদের বাস্তবায়নে ১৪ কোটি ৫ লাখ টাকার দশটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। চলতি অর্থবছরে ২৪১ কোটি ২১ লক্ষ টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ।

এর আগে আজ সকালে বান্দরবান শহরের হাফেজঘোনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে রুমা বাস টার্মিনাল ভবনের উদ্বোধন করেন পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। চলতি অর্থ বছরে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড ২২০ কোটি ৬২ লাখ টাকার উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করেছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড এর ভাইস চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশীদ, বান্দরবান পৌরসভার মেয়র শামসুল ইসলাম, বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহ আলম, পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জিয়াউর রহমান, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত, পরিবহন শ্রমিক নেতা ও সাবেক বান্দরবান উপজেলা চেয়ারম্যান আ. কুদ্দুস, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও বান্দরবান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লক্ষ্মীপদ দাশ, বান্দরবান প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. আমিনুল ইসলাম বাচ্চু ও সাধারণ সম্পাদক মিনারুল ইসলাম মিনারসহ সাংবাদিকবৃন্দ, পরিবহন শ্রমিক নেতা ও স্থানীয় প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

যশোর তানযীমুল উম্মাহর দিনব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

দৃষ্টিনন্দন সড়ক টানেল উদ্বোধন বান্দরবানে

আপডেট সময় ০৭:৩৮:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর ২০২৩

দেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশে বান্দরবানে নির্মিত হয়েছে আধুনিক সড়ক টানেল। শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) সকালে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত ৫০০ ফুট লম্বা টানেল সড়কের ফলক উন্মোচন করেন পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। পার্বত্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘রাস্তার দুই পাশের পাহাড় রক্ষা, যানজট নিরসন, দূরত্ব কমানো ও পর্যটন জেলা বান্দরবানের সৌন্দর্য পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে বান্দরবানে দৃষ্টিনন্দন টানেলের উদ্বোধন করা হয়েছে।’

শুক্রবার (২৭ অক্টোবর) বান্দরবান শহরে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে বান্দরবান বাস টার্মিনাল টানেল এবং বান্দরবান জেলা পরিষদের বাস্তবায়নে ১০টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন অনুষ্ঠানের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এসব কথা বলেন। এ সময় পার্বত্যমন্ত্রী ৫০০ফুট দীর্ঘ ও আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন টানেল ঘুরে দেখেন। পার্বত্যমন্ত্রী বলেন, একসময় পর্যটকগণ বান্দরবানের বাস টার্মিনালে আসা-যাওয়ার পথে যাতায়াতে দুর্ভোগের শিকার হতেন। পর্যটকদের জন্য সুন্দর ও সহজ যোগাযোগ ব্যবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বান্দরবানে সাড়ে চার একর জায়গা নিয়ে বাস টার্মিনাল গড়ে তোলা হয়।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণেই বান্দরবানের উপজেলাগুলোতে হাসপাতাল নির্মাণ, উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, ব্রীজ, কালভার্ট, রাস্তা-ঘাট, ১৪টি কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, ফায়ার সার্ভিস সেন্টার নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ পৌঁছানো হয়েছে।

এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম এলাকার ৪২ হাজার ৫০০ পরিবারের মাঝে সোলার প্যানেলের মাধ্যমে বিদ্যুতের আলো ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হয়েছে। বান্দরবানের প্রতিটি উপজেলা ও ইউনিয়নে প্রশস্ত সড়ক হয়েছে পাশাপাশি শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ সকলক্ষেত্রে পার্বত্য এলাকা এখন আগের চাইতে অনেক বেশি সুন্দর ও পর্যটকবান্ধব হয়েছে। প্রত্যেক উপজেলায় সরকারের খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকার ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে বই দিয়েছে, উপবৃত্তি দিয়েছে, সরকারি নানান ভাতাদি দিয়েছে। কৃষকদের মাঝে পাওয়ার টিলার ও আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতি ও নানা উপকরণ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। বান্দরবানে ১২টি সম্প্রদায়ের মানুষ মিলে ভালোবাসা ও সম্প্রীতির বন্ধন গড়ে তোলা হয়েছে।

পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের সুখ ও স্বাছন্দ্যের জন্য সকল কিছু করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। এ সময় পার্বত্যমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে সবাইকে আওয়ামীলীগ সরকারের পাশে থাকার এবং দেশের উন্নয়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে যাওয়ায় আহ্বান জানান। বান্দরবান জেলা পরিষদের বাস্তবায়নে ১৪ কোটি ৫ লাখ টাকার দশটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। চলতি অর্থবছরে ২৪১ কোটি ২১ লক্ষ টাকার উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ।

এর আগে আজ সকালে বান্দরবান শহরের হাফেজঘোনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে রুমা বাস টার্মিনাল ভবনের উদ্বোধন করেন পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। চলতি অর্থ বছরে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড ২২০ কোটি ৬২ লাখ টাকার উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করেছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড এর ভাইস চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশীদ, বান্দরবান পৌরসভার মেয়র শামসুল ইসলাম, বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহ আলম, পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জিয়াউর রহমান, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত, পরিবহন শ্রমিক নেতা ও সাবেক বান্দরবান উপজেলা চেয়ারম্যান আ. কুদ্দুস, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও বান্দরবান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লক্ষ্মীপদ দাশ, বান্দরবান প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. আমিনুল ইসলাম বাচ্চু ও সাধারণ সম্পাদক মিনারুল ইসলাম মিনারসহ সাংবাদিকবৃন্দ, পরিবহন শ্রমিক নেতা ও স্থানীয় প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।