ঢাকা ১২:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ভৈরবে রেল দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ১ লাখ টাকা দেবে রেল মন্ত্রণালয়

ভৈরবে রেল দুর্ঘটনায় যে যাত্রীরা মারা গেছেন তাদের পরিবারকে প্রাথমিকভাবে এক লাখ টাকা করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া যারা চিকিৎসারত রয়েছেন, তারা তাদের চিকিৎসার সব খরচ পাবেন রেল মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) রেলভবনের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় রেল মন্ত্রণালয় থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী সাতদিনের মধ্যে এই কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় আমরা সংশ্লিষ্ট ৩ জনকে সাসপেন্ড করেছি। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি, লোকোমাস্টারের অবহেলা বা অক্ষমতায় এ ঘটনা ঘটেছে।

রেলমন্ত্রী বলেন, আমরা অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে এখানে উপস্থিত হয়েছি। আমি রেলের দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথমবার যে দুর্ঘটনা হয় সেখানে ২১ জন নিহত হয়েছিল। দীর্ঘদিন পর আবার একটি বড় দুর্ঘটনা ঘটল। এ ঘটনায় আজ ১ জনসহ মোট ২০ জন মারা গেছেন।

এদিকে, দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ৩৫ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১ জন, পঙ্গুতে ৬ জন, চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউট হাসপাতালে ১ জন, রেল হাসপাতালে ১ জন এবং ভৈরবে ১ জনসহ মোট ১০ জন এই মুহূর্তে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। বাকি অনেকে চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ফার্স্ট এশিয়ান রেল সামিটে যোগ দিতে গত ২৩ অক্টোবর আমি দেশের বাইরে ছিলাম। আমার প্রাইভেট সেক্রেটারিও ছিলেন সে সফরে। আরও কয়েকজন গিয়েছিলেন। ২৭ অক্টোবর অবধি আমার সেখানে অবস্থানের কথা ছিল। কিন্তু এ দুর্ঘটনার পর আমি যাত্রা বাতিল করে গতকাল রাতেই ঢাকা এসেছি।

টিআই

জনপ্রিয় সংবাদ

ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টারের সন্ধান মিলেছে , ‘প্রাণের অস্তিত্ব নেই’

ভৈরবে রেল দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ১ লাখ টাকা দেবে রেল মন্ত্রণালয়

আপডেট সময় ০৪:৫০:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

ভৈরবে রেল দুর্ঘটনায় যে যাত্রীরা মারা গেছেন তাদের পরিবারকে প্রাথমিকভাবে এক লাখ টাকা করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া যারা চিকিৎসারত রয়েছেন, তারা তাদের চিকিৎসার সব খরচ পাবেন রেল মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) রেলভবনের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় রেল মন্ত্রণালয় থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী সাতদিনের মধ্যে এই কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় আমরা সংশ্লিষ্ট ৩ জনকে সাসপেন্ড করেছি। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি, লোকোমাস্টারের অবহেলা বা অক্ষমতায় এ ঘটনা ঘটেছে।

রেলমন্ত্রী বলেন, আমরা অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে এখানে উপস্থিত হয়েছি। আমি রেলের দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথমবার যে দুর্ঘটনা হয় সেখানে ২১ জন নিহত হয়েছিল। দীর্ঘদিন পর আবার একটি বড় দুর্ঘটনা ঘটল। এ ঘটনায় আজ ১ জনসহ মোট ২০ জন মারা গেছেন।

এদিকে, দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ৩৫ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১ জন, পঙ্গুতে ৬ জন, চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউট হাসপাতালে ১ জন, রেল হাসপাতালে ১ জন এবং ভৈরবে ১ জনসহ মোট ১০ জন এই মুহূর্তে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। বাকি অনেকে চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ফার্স্ট এশিয়ান রেল সামিটে যোগ দিতে গত ২৩ অক্টোবর আমি দেশের বাইরে ছিলাম। আমার প্রাইভেট সেক্রেটারিও ছিলেন সে সফরে। আরও কয়েকজন গিয়েছিলেন। ২৭ অক্টোবর অবধি আমার সেখানে অবস্থানের কথা ছিল। কিন্তু এ দুর্ঘটনার পর আমি যাত্রা বাতিল করে গতকাল রাতেই ঢাকা এসেছি।

টিআই