ঢাকা ০৩:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিচ্ছে ইউরোপের ২ দেশ, প্রস্তুত নরওয়েও মুন্সিগঞ্জের আওয়ামী লীগের দু-পক্ষরে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত ১ কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় নববধূকে ছাত্রলীগ নেতার অপহরণ ঈদের মাঝেই বাংলাদেশের বুকে ঘটে গেলো নজিরবিহীন একটি ঘটনা পাবনায় তিন দিনব্যাপী ৭০০ বছরের পুরোনো চড়ক পূজা শুরু মধ্যরাতে আড্ডারত ছাত্রলীগের এক গ্রুপের ওপর অপর গ্রুপের হামলা, আহত ৪ একজন মানবিক চেয়ারম্যানের গল্প জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত উদীয়মান সাংবাদিকদের নিয়ে গাজীপুর রাইটার্স ফোরামের ইফতার রমজানে ছিন্নমূল মানুষের জন্য “সচেতন নাগরিক ফরম-সনা‌ফ” এর নানা আয়োজন।

৬৫০০ ছাড়াল গাজায় নিহতের সংখ্যা

৬৫০০ ছাড়াল গাজায় নিহতের সংখ্যা

৭ অক্টোবর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত অন্তত ছয় হাজার ৫৪৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে, যার মধ্যে শিশুর সংখ্যা দুই হাজার ৭০৪। এ ছাড়া আহত হয়েছে ১৭ হাজার ৪৩৯ জন। হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আশরাফ আল-কুদরা এক সংবাদ সম্মেলনে বুধবার এসব তথ্য জানান।

গাজা উপত্যকার দক্ষিণাঞ্চলে গণহত্যা সংঘটিত হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রণালয় আরো জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি হামলায় ৩৪৪ শিশুসহ ৭৫৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

গাজার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা তুলে ধরতে গিয়ে মুখপাত্র বলেন, নিরলস আক্রমণ এবং গুরুতর সংকটের মধ্যে গাজার স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা পরিষেবার বাইরে চলে গেছে। হামলা ৫৭টি প্রতিষ্ঠানকে লক্ষ্যবস্তু ও ক্ষতিগ্রস্ত করেছে এবং ৭৩ জন চিকিৎসাকর্মী নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া ২৫টি অ্যাম্বুল্যান্স এখন পরিষেবার বাইরে রয়েছে।

এখন পর্যন্ত সবচেয়ে মারাত্মক গাজা যুদ্ধ শুরু হয় ৭ অক্টোবর। যখন হামাস যোদ্ধারা ইসরায়েলে হামলা চালায়। এতে দেশটির এক হাজার ৪০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। পাশাপাশি ২২২ জনকে হামাস জিম্মি করেছে বলে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। হামাসের হামলার জবাবে ইসরায়েল গাজায় প্রতিশোধমূলক বোমাবর্ষণ করছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিচ্ছে ইউরোপের ২ দেশ, প্রস্তুত নরওয়েও

৬৫০০ ছাড়াল গাজায় নিহতের সংখ্যা

আপডেট সময় ১২:০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

৭ অক্টোবর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত অন্তত ছয় হাজার ৫৪৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে, যার মধ্যে শিশুর সংখ্যা দুই হাজার ৭০৪। এ ছাড়া আহত হয়েছে ১৭ হাজার ৪৩৯ জন। হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আশরাফ আল-কুদরা এক সংবাদ সম্মেলনে বুধবার এসব তথ্য জানান।

গাজা উপত্যকার দক্ষিণাঞ্চলে গণহত্যা সংঘটিত হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রণালয় আরো জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি হামলায় ৩৪৪ শিশুসহ ৭৫৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

গাজার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা তুলে ধরতে গিয়ে মুখপাত্র বলেন, নিরলস আক্রমণ এবং গুরুতর সংকটের মধ্যে গাজার স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা পরিষেবার বাইরে চলে গেছে। হামলা ৫৭টি প্রতিষ্ঠানকে লক্ষ্যবস্তু ও ক্ষতিগ্রস্ত করেছে এবং ৭৩ জন চিকিৎসাকর্মী নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া ২৫টি অ্যাম্বুল্যান্স এখন পরিষেবার বাইরে রয়েছে।

এখন পর্যন্ত সবচেয়ে মারাত্মক গাজা যুদ্ধ শুরু হয় ৭ অক্টোবর। যখন হামাস যোদ্ধারা ইসরায়েলে হামলা চালায়। এতে দেশটির এক হাজার ৪০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। পাশাপাশি ২২২ জনকে হামাস জিম্মি করেছে বলে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। হামাসের হামলার জবাবে ইসরায়েল গাজায় প্রতিশোধমূলক বোমাবর্ষণ করছে।