ঢাকা ০৯:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাপলা চত্বরে সমাবেশের অুমতি পায়নি জামায়াত

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার

আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করতে পুলিশ অনুমতি দেবে না বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার।

২৮ অক্টোবরকে ঘিরে রাজনৈতিক অঙ্গনে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ দিন রাজধানীতে সরকারি দল আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী পৃথক পৃথক স্থান সমাবেশের ডাক দিয়েছে। ইতোমধ্যে তিন দলের প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কোনো অবস্থায় জামায়াতকে সমাবেশ করতে দেয়া হবে না। অন্যদিকে বিএনপিও যদি অনুমতির বাইরে কিছু করতে যায় তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

তিনি বলেন, জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। এরা নির্বাচন কমিশন থেকেই নিবন্ধনহীন। তাই তাদের অনুমতি নেই। অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করলে ব্যবস্থা নেবে ডিএমপি।

মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) নিজ কার্যালয়ে এসব কথা বলেন ডিএমপি যুগ্ম কমিশনার (অপারেশনস) বিপ্লব কুমার সরকার।

২৮ অক্টোবর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এবং মাঠের বিরোধীদল বিএনপি মহাসমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে। সেদিন জামায়াতও শাপলা চত্বরে সমাবেশ করার কথা জানিয়েছে। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে জামায়াতের সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, এখন পর্যন্ত মতিঝিলের শাপলা চত্বরে জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তাদের সভা-সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। কারণ জামায়াতে ইসলামী স্বাধীনতাবিরোধী একটি রাজনৈতিক দল। যে দলটি যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত। যার শীর্ষস্থানীয় নেতাদের যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ার কোনো সুযোগই নেই।

বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর পার্থক্য রয়েছে। অন্য রাজনৈতিক দল যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত নয়। জামায়াতের নিবন্ধনও বাতিল করা হয়েছে।

বিএনপির অনুমতি প্রসঙ্গে বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, ‘বিএনপি অনুমতি না নিয়ে সমাবেশ করতে চায়। অনুমতি না নিয়ে সভা সমাবেশ করা বেআইনি। যারা এমন বেআইনি কাজ করবে তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জনপ্রিয় সংবাদ

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই নেই: বাইডেন

শাপলা চত্বরে সমাবেশের অুমতি পায়নি জামায়াত

আপডেট সময় ১১:১২:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩

আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করতে পুলিশ অনুমতি দেবে না বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার।

২৮ অক্টোবরকে ঘিরে রাজনৈতিক অঙ্গনে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ দিন রাজধানীতে সরকারি দল আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী পৃথক পৃথক স্থান সমাবেশের ডাক দিয়েছে। ইতোমধ্যে তিন দলের প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কোনো অবস্থায় জামায়াতকে সমাবেশ করতে দেয়া হবে না। অন্যদিকে বিএনপিও যদি অনুমতির বাইরে কিছু করতে যায় তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

তিনি বলেন, জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। এরা নির্বাচন কমিশন থেকেই নিবন্ধনহীন। তাই তাদের অনুমতি নেই। অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করলে ব্যবস্থা নেবে ডিএমপি।

মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) নিজ কার্যালয়ে এসব কথা বলেন ডিএমপি যুগ্ম কমিশনার (অপারেশনস) বিপ্লব কুমার সরকার।

২৮ অক্টোবর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এবং মাঠের বিরোধীদল বিএনপি মহাসমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে। সেদিন জামায়াতও শাপলা চত্বরে সমাবেশ করার কথা জানিয়েছে। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে জামায়াতের সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, এখন পর্যন্ত মতিঝিলের শাপলা চত্বরে জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তাদের সভা-সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। কারণ জামায়াতে ইসলামী স্বাধীনতাবিরোধী একটি রাজনৈতিক দল। যে দলটি যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত। যার শীর্ষস্থানীয় নেতাদের যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ার কোনো সুযোগই নেই।

বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর পার্থক্য রয়েছে। অন্য রাজনৈতিক দল যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত নয়। জামায়াতের নিবন্ধনও বাতিল করা হয়েছে।

বিএনপির অনুমতি প্রসঙ্গে বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, ‘বিএনপি অনুমতি না নিয়ে সমাবেশ করতে চায়। অনুমতি না নিয়ে সভা সমাবেশ করা বেআইনি। যারা এমন বেআইনি কাজ করবে তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’