ঢাকা ১০:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না : বিপ্লব কুমার

জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না : বিপ্লব কুমার

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার (অপারেশনস) বিপ্লব কুমার সরকার বলেছেন, জামায়াতে ইসলামী স্বাধীনতাবিরোধী একটি রাজনৈতিক দল। যে দলটি যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত। যার শীর্ষস্থানীয় নেতাদের যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। তাই তাদেরকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ার কোনো সুযোগই নেই।

আজ মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি। আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বরে সমাবেশের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। সেই সঙ্গে বিএনপি ও আওয়ামী লীগও সমাবেশের ডাক দিয়েছে। তবে বিএনপি-আওয়ামী লীগকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হলেও জামায়াতকে সভা-সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে ডিএমপি।

ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার বলেন, এখন পর্যন্ত মতিঝিলের শাপলা চত্বরে জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তাদের সভা-সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। কারণ হিসেবে বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর পার্থক্য রয়েছে। অন্য রাজনৈতিক দল যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত নয়।

জামায়াতের নিবন্ধনও বাতিল করা হয়েছে। অনুমতি না পেলেও যদি তারা সভা-সমাবেশ করতে চায় সে ক্ষেত্রে পুলিশের ভূমিকা কী হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢাকা মহানগর পুলিশের যে অধ্যাদেশ রয়েছে, পুলিশ কমিশনারের অনুমতি ছাড়া কেউ কোনো সভা-সমাবেশ করতে পারবে না। জামায়াত ইসলামী যদি কমিশনারের অনুমতি ছাড়া সভা-সমাবেশ করতে চায় তবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা, জামায়াত আমিরসহ নেতাকর্মী, আলেম-ওলামাদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণের দাবিতে ২৮ অক্টোবর সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে জামায়াত।

জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না : বিপ্লব কুমার

আপডেট সময় ০৯:৩৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০২৩

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার (অপারেশনস) বিপ্লব কুমার সরকার বলেছেন, জামায়াতে ইসলামী স্বাধীনতাবিরোধী একটি রাজনৈতিক দল। যে দলটি যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত। যার শীর্ষস্থানীয় নেতাদের যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। তাই তাদেরকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়ার কোনো সুযোগই নেই।

আজ মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি। আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বরে সমাবেশের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। সেই সঙ্গে বিএনপি ও আওয়ামী লীগও সমাবেশের ডাক দিয়েছে। তবে বিএনপি-আওয়ামী লীগকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হলেও জামায়াতকে সভা-সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছে ডিএমপি।

ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার বলেন, এখন পর্যন্ত মতিঝিলের শাপলা চত্বরে জামায়াতে ইসলামীকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। তাদের সভা-সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। কারণ হিসেবে বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর পার্থক্য রয়েছে। অন্য রাজনৈতিক দল যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত নয়।

জামায়াতের নিবন্ধনও বাতিল করা হয়েছে। অনুমতি না পেলেও যদি তারা সভা-সমাবেশ করতে চায় সে ক্ষেত্রে পুলিশের ভূমিকা কী হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢাকা মহানগর পুলিশের যে অধ্যাদেশ রয়েছে, পুলিশ কমিশনারের অনুমতি ছাড়া কেউ কোনো সভা-সমাবেশ করতে পারবে না। জামায়াত ইসলামী যদি কমিশনারের অনুমতি ছাড়া সভা-সমাবেশ করতে চায় তবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা, জামায়াত আমিরসহ নেতাকর্মী, আলেম-ওলামাদের মুক্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণের দাবিতে ২৮ অক্টোবর সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে জামায়াত।