ঢাকা ১২:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

গাজীপুরে প্রণোদনা পেলেন সাড়ে ১২০০ কৃষক

গাজীপুরে প্রণোদনা পেলেন সাড়ে ১২০০ কৃষক

গাজীপুরে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে রবি মৌসুমে ভুট্টা, সরিষা, শীতকালীন পেঁয়াজ ও মুগ ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে এক হাজার ২৫০ ক্ষুদ্র-প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কর্তৃক পরিষদ চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্থানীয় কৃষকদের এ প্রণোদনা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাফছা নাদিয়ার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোয়াজ্জেম হোসেন পলাশ, কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ফারজানা তাসলিম প্রমুখ।

জানা গেছে, ক্ষুদ্র-প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে ১১০ জনকে এক বিঘা জমিতে ভুট্টা চাষের জন্য দুই কেজি হাইব্রিড ভুট্টা বীজ, ২০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি সার, এক হাজার কৃষককে এক বিঘা জমিতে সরিষা চাষের জন্য এক কেজি সরিষা বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি সার, ১০০ জনকে এক বিঘা জমিতে পেঁয়াজ চাষের জন্য এক কেজি পেঁয়াজ বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি সার, এবং ৪০ জনকে এক বিঘা জমিতে মুগ চাষের জন্য পাঁচ কেজি মুগ বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও পাঁচ কেজি এমওপি সার দেওয়া হয়।

ঢাকা ভয়েস/টিআই

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টারের সন্ধান মিলেছে , ‘প্রাণের অস্তিত্ব নেই’

গাজীপুরে প্রণোদনা পেলেন সাড়ে ১২০০ কৃষক

আপডেট সময় ০৫:২১:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০২৩

গাজীপুরে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে রবি মৌসুমে ভুট্টা, সরিষা, শীতকালীন পেঁয়াজ ও মুগ ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে এক হাজার ২৫০ ক্ষুদ্র-প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কর্তৃক পরিষদ চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্থানীয় কৃষকদের এ প্রণোদনা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাফছা নাদিয়ার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোয়াজ্জেম হোসেন পলাশ, কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ফারজানা তাসলিম প্রমুখ।

জানা গেছে, ক্ষুদ্র-প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে ১১০ জনকে এক বিঘা জমিতে ভুট্টা চাষের জন্য দুই কেজি হাইব্রিড ভুট্টা বীজ, ২০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি সার, এক হাজার কৃষককে এক বিঘা জমিতে সরিষা চাষের জন্য এক কেজি সরিষা বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি সার, ১০০ জনকে এক বিঘা জমিতে পেঁয়াজ চাষের জন্য এক কেজি পেঁয়াজ বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও ১০ কেজি এমওপি সার, এবং ৪০ জনকে এক বিঘা জমিতে মুগ চাষের জন্য পাঁচ কেজি মুগ বীজ, ১০ কেজি ডিএপি সার ও পাঁচ কেজি এমওপি সার দেওয়া হয়।

ঢাকা ভয়েস/টিআই