ঢাকা ০৫:৫১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা অন্তত ১৮

ভারতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা অন্তত ১৮

ভারতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৮ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৩০ জন। নিহতদের মধ্যে নারী ও শিশুরাও রয়েছে। দেশটির উত্তর প্রদেশের লখনৌ-আগ্রা এক্সপ্রেসওয়েতে ডাবল-ডেকার বাসের সঙ্গে দুধের ট্যাংকারের সংঘর্ষে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে। বুধবার (১০ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

পুলিশ জানিয়েছে, ডাবল-ডেকার বাসটি বিহার রাজ্যের সীতামারহি থেকে দিল্লির দিকে যাচ্ছিল।

পতিমধ্যে দুরন্ত গতিতে ছুটে আসা বাসটি লখনৌ-আগ্রা এক্সপ্রেসওয়েতে পেছন থেকে দুধের ট্যাংকারটিকে ধাক্কা দেয়। ধাক্কা লাগার সঙ্গে সঙ্গে উল্টে যায় বাস ৷ ঘুমন্ত অবস্থায় ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় ১৮ জনের এবং আহত হন ৩০ জন ৷

দুর্ঘটনার বিকট আওয়াজে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এলাকাবাসী ৷ এরপর পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন প্রশাসনের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা। সডিএম নম্রতা সিং জানান, দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখা হবে।

যাত্রীদের উদ্ধার করাই এখন প্রাথমিক কাজ। তিনি আরো বলেন, ‘বাসে ৫০ জন যাত্রী ছিলেন। প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে, বাস চালাতে চালাতে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন চালক। সেই কারণেই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নিহত এবং আহতদের পরিচয় জানার চেষ্টাও চলছে। ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৷ মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি ৷ সেইসঙ্গে প্রশাসনিক কর্তাদের ঘটনাস্থলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ভারতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা অন্তত ১৮

আপডেট সময় ০৮:০২:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

ভারতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৮ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৩০ জন। নিহতদের মধ্যে নারী ও শিশুরাও রয়েছে। দেশটির উত্তর প্রদেশের লখনৌ-আগ্রা এক্সপ্রেসওয়েতে ডাবল-ডেকার বাসের সঙ্গে দুধের ট্যাংকারের সংঘর্ষে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে। বুধবার (১০ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

পুলিশ জানিয়েছে, ডাবল-ডেকার বাসটি বিহার রাজ্যের সীতামারহি থেকে দিল্লির দিকে যাচ্ছিল।

পতিমধ্যে দুরন্ত গতিতে ছুটে আসা বাসটি লখনৌ-আগ্রা এক্সপ্রেসওয়েতে পেছন থেকে দুধের ট্যাংকারটিকে ধাক্কা দেয়। ধাক্কা লাগার সঙ্গে সঙ্গে উল্টে যায় বাস ৷ ঘুমন্ত অবস্থায় ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় ১৮ জনের এবং আহত হন ৩০ জন ৷

দুর্ঘটনার বিকট আওয়াজে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এলাকাবাসী ৷ এরপর পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন প্রশাসনের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা। সডিএম নম্রতা সিং জানান, দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখা হবে।

যাত্রীদের উদ্ধার করাই এখন প্রাথমিক কাজ। তিনি আরো বলেন, ‘বাসে ৫০ জন যাত্রী ছিলেন। প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে, বাস চালাতে চালাতে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন চালক। সেই কারণেই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নিহত এবং আহতদের পরিচয় জানার চেষ্টাও চলছে। ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৷ মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি ৷ সেইসঙ্গে প্রশাসনিক কর্তাদের ঘটনাস্থলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।