ঢাকা ১১:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের সাথে নির্বাচনের বিষয়ে একমত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন দূতাবাস

  • নিজস্ব সংবাদ
  • আপডেট সময় ০৫:৫৪:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ অক্টোবর ২০২৩
  • ১২৯ বার পড়া হয়েছে

শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে একমত হয়েছে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার (১৬ অক্টোবর) পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী আফরিন আখতারের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়ে। বৈঠকে নির্বাচনের বিষয় গুরুত্ব পেয়েছে। এছাড়াও উভয় দেশের বহুমুখী দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী করার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

বৈঠকের পর ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র মিশন থেকে এক বিবৃতি দিয়ে এসব তথ্য জানানো হয়।

ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র মিশন থেকে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, আলোচনায় প্রাধান্য পেয়েছে মার্কিন প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ ও বাণিজ্য, দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়ন অংশীদারিত্ব, মধ্যপ্রাচ্য, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সমর্থন এবং সরকারি প্রচেষ্টা নিশ্চিত করা। বৈঠকে বাংলাদেশের মানুষ অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে তাদের ভোট দেয়ার বিষয়টি গুরুত্ব পায়।

এর আগে এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেন, আফরিন আক্তার মূলত দুটি ইস্যুতে আলোচনা করতে বাংলাদেশে আসবেন। একটি হলো রোহিঙ্গা সমস্যা, অন্যটি জাতীয় নির্বাচন। এছাড়া উভয়পক্ষ পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করবেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

পিটার হাসকে হুমকিদাতা ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

বাংলাদেশের সাথে নির্বাচনের বিষয়ে একমত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: মার্কিন দূতাবাস

আপডেট সময় ০৫:৫৪:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৬ অক্টোবর ২০২৩

শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে একমত হয়েছে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার (১৬ অক্টোবর) পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী আফরিন আখতারের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়ে। বৈঠকে নির্বাচনের বিষয় গুরুত্ব পেয়েছে। এছাড়াও উভয় দেশের বহুমুখী দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী করার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

বৈঠকের পর ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র মিশন থেকে এক বিবৃতি দিয়ে এসব তথ্য জানানো হয়।

ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র মিশন থেকে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়, আলোচনায় প্রাধান্য পেয়েছে মার্কিন প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ ও বাণিজ্য, দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়ন অংশীদারিত্ব, মধ্যপ্রাচ্য, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সমর্থন এবং সরকারি প্রচেষ্টা নিশ্চিত করা। বৈঠকে বাংলাদেশের মানুষ অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে তাদের ভোট দেয়ার বিষয়টি গুরুত্ব পায়।

এর আগে এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেন, আফরিন আক্তার মূলত দুটি ইস্যুতে আলোচনা করতে বাংলাদেশে আসবেন। একটি হলো রোহিঙ্গা সমস্যা, অন্যটি জাতীয় নির্বাচন। এছাড়া উভয়পক্ষ পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করবেন।