ঢাকা ০৭:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিসিএস পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের প্রতিবাদে চাকরির বই পোড়ালেন রাবি শিক্ষার্থীরা

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) নেওয়া বিসিএসের ক্যাডার এবং নন-ক্যাডার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় বই পুড়িয়ে প্রতিবাদ করলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০-১৫ জন শিক্ষার্থী।

রবিবার (৭ জুলাই) রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদার বখশ হলের ৪১৩ নং রুমের সামনে বই পোড়ানো হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান আকন্দ বলেন, “শিক্ষার্থীদের ভরসার জায়গা বিপিএসসির নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নও যদি ফাঁস হয় তাহলে মেধাবীরা কোথায় যাবে? আমাদের তো লেখাপড়া করে কোনো লাভ নেই। তাই বই পুড়িয়ে দিচ্ছি।”

এসময় চাকরিতে কোটার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “বাবা-মা অভাবনীয় কষ্ট করে মাসের পর মাস, বছরের পর বছর টাকা দিয়ে যাচ্ছে। যদি চাকরি না পাই তাহলে তাদের রক্ত ও ঘামের সঙ্গে প্রতারণা করা হবে।”

উল্লেখ্য, একটি বেসরকারি টেলিভিশনের এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রায় এক যুগ ধরে প্রশ্ন ফাঁস হয়ে আসছে। এমনকি সবশেষ ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রশ্নও ফাঁস হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সবশেষ গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত রেলওয়ের ৫১৬টি পদের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নও ফাঁস হয়। ৩৩তম বিসিএস থেকে ৪৬তম বিসিএস পর্যন্ত প্রায় ৩০টি ক্যাডার-নন ক্যাডার পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়।

বিসিএস পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের প্রতিবাদে চাকরির বই পোড়ালেন রাবি শিক্ষার্থীরা

আপডেট সময় ১২:৫৫:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) নেওয়া বিসিএসের ক্যাডার এবং নন-ক্যাডার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় বই পুড়িয়ে প্রতিবাদ করলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০-১৫ জন শিক্ষার্থী।

রবিবার (৭ জুলাই) রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদার বখশ হলের ৪১৩ নং রুমের সামনে বই পোড়ানো হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান আকন্দ বলেন, “শিক্ষার্থীদের ভরসার জায়গা বিপিএসসির নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নও যদি ফাঁস হয় তাহলে মেধাবীরা কোথায় যাবে? আমাদের তো লেখাপড়া করে কোনো লাভ নেই। তাই বই পুড়িয়ে দিচ্ছি।”

এসময় চাকরিতে কোটার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, “বাবা-মা অভাবনীয় কষ্ট করে মাসের পর মাস, বছরের পর বছর টাকা দিয়ে যাচ্ছে। যদি চাকরি না পাই তাহলে তাদের রক্ত ও ঘামের সঙ্গে প্রতারণা করা হবে।”

উল্লেখ্য, একটি বেসরকারি টেলিভিশনের এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রায় এক যুগ ধরে প্রশ্ন ফাঁস হয়ে আসছে। এমনকি সবশেষ ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রশ্নও ফাঁস হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সবশেষ গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত রেলওয়ের ৫১৬টি পদের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নও ফাঁস হয়। ৩৩তম বিসিএস থেকে ৪৬তম বিসিএস পর্যন্ত প্রায় ৩০টি ক্যাডার-নন ক্যাডার পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়।