ঢাকা ০৭:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে ভারতে ১০৭ জনের মৃত্যু

  • ফখরুল ইসলাম
  • আপডেট সময় ০৬:৩৩:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪
  • 38

ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে ভারতে ২৭ জনের মৃত্যু

ভারতের উত্তর প্রদেশের হথরসে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে অন্তত ১০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি মঙ্গলবার (২ জুলাই) জানিয়েছে, পদদলনের ঘটনা ঘটে একটি প্রার্থনা সভায়। স্থানীয় কমিউনিটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ধারণ করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বাস এবং ট্যাম্পুতে করে অনেকের নিথর দেহ নিয়ে আসা হয়েছে। ওই সময় তাদের আত্মীয়-স্বজনরা কান্নাকাটি করছিলেন।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে এ ঘটনা সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে এবং কীভাবে ভয়াবহ এই পদদলনের ঘটনা ঘটল সেটির কারণ খুঁজে বের করতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ইটাহর প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার উমেশ কুমার ত্রিপাথী বলেছেন, “আমরা ১০৭টি মরদেহ পেয়েছি। যার মধ্যে অনেক নারী ও শিশু রয়েছে। আহত অনেককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আমরা শুনেছি প্রার্থনা সভার সময় পদদলনের ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু বিস্তারিত এখনো কিছু জানি না।”

ইটাহর জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা রাজেশ কুমার জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তিনটি শিশুও রয়েছে। পদদলনের এই ঘটনা ঘটে সিকান্দ্র রাও থানার অন্তর্গত একটি গ্রামে। তিনি বলেছেন, “এখন পর্যন্ত ১০৭টি মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। যার মধ্যে অনেক নারী এবং তিনটি শিশুর মরদেহ রয়েছে।”

ওই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া এক নারী জানিয়েছেন, প্রার্থনা সভাটি আয়োজন করা হয়েছিল স্থানীয় এক ধর্মীয় গুরুর সম্মানে। অনুষ্ঠান শেষে যখন মানুষ বের হয়ে যাচ্ছিলেন তখন পদদললেন ঘটনা ঘটে।

ট্যাগস :

ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে ভারতে ১০৭ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০৬:৩৩:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

ভারতের উত্তর প্রদেশের হথরসে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে অন্তত ১০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি মঙ্গলবার (২ জুলাই) জানিয়েছে, পদদলনের ঘটনা ঘটে একটি প্রার্থনা সভায়। স্থানীয় কমিউনিটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ধারণ করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বাস এবং ট্যাম্পুতে করে অনেকের নিথর দেহ নিয়ে আসা হয়েছে। ওই সময় তাদের আত্মীয়-স্বজনরা কান্নাকাটি করছিলেন।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে এ ঘটনা সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে এবং কীভাবে ভয়াবহ এই পদদলনের ঘটনা ঘটল সেটির কারণ খুঁজে বের করতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ইটাহর প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার উমেশ কুমার ত্রিপাথী বলেছেন, “আমরা ১০৭টি মরদেহ পেয়েছি। যার মধ্যে অনেক নারী ও শিশু রয়েছে। আহত অনেককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আমরা শুনেছি প্রার্থনা সভার সময় পদদলনের ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু বিস্তারিত এখনো কিছু জানি না।”

ইটাহর জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা রাজেশ কুমার জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তিনটি শিশুও রয়েছে। পদদলনের এই ঘটনা ঘটে সিকান্দ্র রাও থানার অন্তর্গত একটি গ্রামে। তিনি বলেছেন, “এখন পর্যন্ত ১০৭টি মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। যার মধ্যে অনেক নারী এবং তিনটি শিশুর মরদেহ রয়েছে।”

ওই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া এক নারী জানিয়েছেন, প্রার্থনা সভাটি আয়োজন করা হয়েছিল স্থানীয় এক ধর্মীয় গুরুর সম্মানে। অনুষ্ঠান শেষে যখন মানুষ বের হয়ে যাচ্ছিলেন তখন পদদললেন ঘটনা ঘটে।