ঢাকা ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঘড়ি কোন হাতে পরবেন

ঘড়ি কোন হাতে পরবেন

এক সময় মানুষ শুধু সময় দেখার জন্য হাতে ঘড়ি পরত। আর এখন তা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। ব্র্যান্ডের ঘড়ি হাতে পরলে চাল-চলনই বদলে যায়। এমনকি ব্যক্তিত্বের প্রকাশও ঘটে এই ঘড়ি পরার স্টাইলে। ঘড়ি সাধারণত বাঁ হাতে পরা হয়। পৃথিবীর অধিকাংশ পুরুষ বাঁ হাতেই ঘড়ি পরতে পছন্দ করেন। তবে নারীদের ক্ষেত্রে একটু ব্যতিক্রম। বেশিরভাগ নারী ডান হাতে ঘড়ি পরে থাকেন। নারীরা সব সময় পরিপাটি ও সেজেগুজে থাকতে পছন্দ করেন। যে কারণে তারা সৌন্দর্যের অংশ হিসেবে ডান হাতেই ঘড়ি পরে থাকেন।

এখন প্রশ্ন হলো, ঘড়ি আদতে কোন হাতে পরতে হবে? বাম হাতে না-কি ডান হাতে? উত্তরটা যদি হয় বাম হাতে, তবে পাঠকদের জন্য প্রশ্ন, কেন বাম হাতেই ঘড়ি পরতে হবে? নিশ্চয়ই জবাব হবে অন্যরা পরে তাই আমরাও পরি।

প্রথম যে সময় ঘড়ি উদ্ভাবন হয় সে সময় তা হাতে পরার কথা কেউ চিন্তাও করেনি। অর্থাৎ হাতে ঘড়ি রেখে সময় দেখবে এমন ভাবনা ওই সময় কারও মাথায় ছিল না। তাই কিভাবে এই ঘড়ি আমাদের হাতের কবজিতে তার জায়গা করে নেয় এবং কেন বাম হাতেই মানুষ তা পরিধান করছে তার পেছনেও কারণ আছে।

ইতিহাস থেকে জানা যায়, শুরুর দিকে যখন ছোট ঘড়ি উদ্ভাবন হয়েছিল, তখন বেশিরভাগ মানুষই ঘড়ি পকেটে রাখতেন। পকেটঘড়ি সেই সময় অনেক লোকের প্রিয় ছিল। বোর যুদ্ধের সময় যখন আমেরিকান সৈনিকরা দক্ষিণ আফ্রিকার রিপাবলিক ধ্বংস করতে নামে, তখন একদল সৈনিক চামড়ার স্ট্রাপে ঘড়ি আটকে কবজিতে পরা শুরু করে। মিলিটারি অপারেশনের প্রতি মিনিটকে নথিবদ্ধ করতেই তারা এটি করেছিল। কারণ ওই সময় পকেট থেকে ঘড়ি বের করে বারবার সময় নথিবদ্ধ করা ছিল খুবই ক্লেশকর। যা কী-না যুদ্ধের মাঠে টাইম কিলার ছিল। যে কারণে তারা হাতে ঘড়ি বেঁধে নেওয়ার উপায় বের করে। আর সেই থেকেই শুরু হয় বাঁ হাতে ঘড়ি পরার চল।

কিন্তু বাম হাতে কেন? পৃথিবীর অর্ধেকের বেশি মানুষ ডানহাতি এবং তারা ডানহাতে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। তাই বাঁ হাতের ঘড়ি পরার মূল কারণ হচ্ছে, ডানহাতে ঘড়ি পরলে কাজ বন্ধ করে সময় দেখতে হতো এবং ওই সময় ডানহাতে ঘড়ি পরে কোনো কাজ করতে গেলে সেই ঘড়ি ভেঙে যাওয়ারও আশঙ্কা থাকত। যে কারণে কিছুটা বাধ্য হয়েই বাঁ হাতে ঘড়ি পরতে হতো। একটা সময় আসে যখন মানুষ বাঁ হাতে ঘড়ি পরার অভ্যাসে অনেক স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। আস্তে আস্তে এই রীতি বেশ জনপ্রিয়তা পায়। শুরু হয় বাঁ হাতে ঘড়ি পরার চল।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই নেই: বাইডেন

ঘড়ি কোন হাতে পরবেন

আপডেট সময় ০৩:০৬:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

এক সময় মানুষ শুধু সময় দেখার জন্য হাতে ঘড়ি পরত। আর এখন তা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। ব্র্যান্ডের ঘড়ি হাতে পরলে চাল-চলনই বদলে যায়। এমনকি ব্যক্তিত্বের প্রকাশও ঘটে এই ঘড়ি পরার স্টাইলে। ঘড়ি সাধারণত বাঁ হাতে পরা হয়। পৃথিবীর অধিকাংশ পুরুষ বাঁ হাতেই ঘড়ি পরতে পছন্দ করেন। তবে নারীদের ক্ষেত্রে একটু ব্যতিক্রম। বেশিরভাগ নারী ডান হাতে ঘড়ি পরে থাকেন। নারীরা সব সময় পরিপাটি ও সেজেগুজে থাকতে পছন্দ করেন। যে কারণে তারা সৌন্দর্যের অংশ হিসেবে ডান হাতেই ঘড়ি পরে থাকেন।

এখন প্রশ্ন হলো, ঘড়ি আদতে কোন হাতে পরতে হবে? বাম হাতে না-কি ডান হাতে? উত্তরটা যদি হয় বাম হাতে, তবে পাঠকদের জন্য প্রশ্ন, কেন বাম হাতেই ঘড়ি পরতে হবে? নিশ্চয়ই জবাব হবে অন্যরা পরে তাই আমরাও পরি।

প্রথম যে সময় ঘড়ি উদ্ভাবন হয় সে সময় তা হাতে পরার কথা কেউ চিন্তাও করেনি। অর্থাৎ হাতে ঘড়ি রেখে সময় দেখবে এমন ভাবনা ওই সময় কারও মাথায় ছিল না। তাই কিভাবে এই ঘড়ি আমাদের হাতের কবজিতে তার জায়গা করে নেয় এবং কেন বাম হাতেই মানুষ তা পরিধান করছে তার পেছনেও কারণ আছে।

ইতিহাস থেকে জানা যায়, শুরুর দিকে যখন ছোট ঘড়ি উদ্ভাবন হয়েছিল, তখন বেশিরভাগ মানুষই ঘড়ি পকেটে রাখতেন। পকেটঘড়ি সেই সময় অনেক লোকের প্রিয় ছিল। বোর যুদ্ধের সময় যখন আমেরিকান সৈনিকরা দক্ষিণ আফ্রিকার রিপাবলিক ধ্বংস করতে নামে, তখন একদল সৈনিক চামড়ার স্ট্রাপে ঘড়ি আটকে কবজিতে পরা শুরু করে। মিলিটারি অপারেশনের প্রতি মিনিটকে নথিবদ্ধ করতেই তারা এটি করেছিল। কারণ ওই সময় পকেট থেকে ঘড়ি বের করে বারবার সময় নথিবদ্ধ করা ছিল খুবই ক্লেশকর। যা কী-না যুদ্ধের মাঠে টাইম কিলার ছিল। যে কারণে তারা হাতে ঘড়ি বেঁধে নেওয়ার উপায় বের করে। আর সেই থেকেই শুরু হয় বাঁ হাতে ঘড়ি পরার চল।

কিন্তু বাম হাতে কেন? পৃথিবীর অর্ধেকের বেশি মানুষ ডানহাতি এবং তারা ডানহাতে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। তাই বাঁ হাতের ঘড়ি পরার মূল কারণ হচ্ছে, ডানহাতে ঘড়ি পরলে কাজ বন্ধ করে সময় দেখতে হতো এবং ওই সময় ডানহাতে ঘড়ি পরে কোনো কাজ করতে গেলে সেই ঘড়ি ভেঙে যাওয়ারও আশঙ্কা থাকত। যে কারণে কিছুটা বাধ্য হয়েই বাঁ হাতে ঘড়ি পরতে হতো। একটা সময় আসে যখন মানুষ বাঁ হাতে ঘড়ি পরার অভ্যাসে অনেক স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। আস্তে আস্তে এই রীতি বেশ জনপ্রিয়তা পায়। শুরু হয় বাঁ হাতে ঘড়ি পরার চল।