ঢাকা ০৫:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুর্নীতিবাজদের কোনো সহানুভূতি দেখানো হচ্ছে না: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

দুর্নীতিবাজদের কোনো সহানুভূতি দেখানো হচ্ছে না: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

দুর্নীতির সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের প্রতি কোনো সহানুভূতি দেখানো হচ্ছে না ব‌লে দাবি করে‌ছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন। সোমবার (১ জুলাই) বিকে‌লে সচিবালয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, সরকারের পক্ষ থেকে অবস্থানটা পরিষ্কার করা হয়েছে যে, দুর্নীতির সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের বিষয়ে কোনো সহানুভূতি দেখানো হবে না এবং দেখানো হচ্ছে না। এটা আপনারা খেয়াল করেছেন। সেটিই আমরা এখন সিরিয়াসলি ফলো করছি।

দুর্নী‌তির বিষ‌য়ে এক প্রশ্নের জবা‌বে তি‌নি ব‌লেন, আমি জানি না, একটা বিষয় আপনারা আমার সঙ্গে স্বীকার করবেন কি না, দুর্নীতি তো সবাই করে না। একটা অফিসের সবাই কি দুর্নীতিবাজ? হাতেগোনা কয়েকজন করে, ওই হাতেগোনা কয়েকজনের জন্য বাকি সবাই বিব্রত হয়। অবস্থা তো তাই দাঁড়িয়েছে, তাই না? তাহলে আপনি বলতে পারেন, ফাঁকে ফাঁকে কেন (দুর্নীতি) হচ্ছে। দুর্নীতিটা এত কাঠামোর মধ্যে থাকার পরেও হচ্ছে। এটা সব সমাজে সব জায়গায় হয়। যাদের দুষ্টু চিন্তার মানসিকতা, যাদের দুষ্টু বুদ্ধির মানসিকতা, তারা এই (দুর্নীতি) কাজগুলো করতে চান। আমরা এটুকু দেখতে পাচ্ছি। যখনই এ বিষয়টি সরকারের নজরে আসে, সরকারের পক্ষ থেকে কোনো প্রশ্রয় দেওয়া হয় না।

মন্ত্রিপরিষদ স‌চিব বলেন, সরকারের প্রশাসন যন্ত্র দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে কোনোরকম বাধা দেয়নি। সরকারের সব মেকানিজম এই দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সব সময় সহযোগিতা করছে।

একজন সাবেক আমলা বলেছেন, মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো দুর্নীতির দেরাজ খুলে বসেছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মন্ত্রণালয়ের সচিবরা এ বিষয়ে ভালো উত্তর দিতে পারবেন।

দুর্নীতিবাজদের কোনো সহানুভূতি দেখানো হচ্ছে না: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

আপডেট সময় ১০:৩২:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪

দুর্নীতির সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের প্রতি কোনো সহানুভূতি দেখানো হচ্ছে না ব‌লে দাবি করে‌ছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন। সোমবার (১ জুলাই) বিকে‌লে সচিবালয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, সরকারের পক্ষ থেকে অবস্থানটা পরিষ্কার করা হয়েছে যে, দুর্নীতির সঙ্গে যারা জড়িত, তাদের বিষয়ে কোনো সহানুভূতি দেখানো হবে না এবং দেখানো হচ্ছে না। এটা আপনারা খেয়াল করেছেন। সেটিই আমরা এখন সিরিয়াসলি ফলো করছি।

দুর্নী‌তির বিষ‌য়ে এক প্রশ্নের জবা‌বে তি‌নি ব‌লেন, আমি জানি না, একটা বিষয় আপনারা আমার সঙ্গে স্বীকার করবেন কি না, দুর্নীতি তো সবাই করে না। একটা অফিসের সবাই কি দুর্নীতিবাজ? হাতেগোনা কয়েকজন করে, ওই হাতেগোনা কয়েকজনের জন্য বাকি সবাই বিব্রত হয়। অবস্থা তো তাই দাঁড়িয়েছে, তাই না? তাহলে আপনি বলতে পারেন, ফাঁকে ফাঁকে কেন (দুর্নীতি) হচ্ছে। দুর্নীতিটা এত কাঠামোর মধ্যে থাকার পরেও হচ্ছে। এটা সব সমাজে সব জায়গায় হয়। যাদের দুষ্টু চিন্তার মানসিকতা, যাদের দুষ্টু বুদ্ধির মানসিকতা, তারা এই (দুর্নীতি) কাজগুলো করতে চান। আমরা এটুকু দেখতে পাচ্ছি। যখনই এ বিষয়টি সরকারের নজরে আসে, সরকারের পক্ষ থেকে কোনো প্রশ্রয় দেওয়া হয় না।

মন্ত্রিপরিষদ স‌চিব বলেন, সরকারের প্রশাসন যন্ত্র দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারে কোনোরকম বাধা দেয়নি। সরকারের সব মেকানিজম এই দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সব সময় সহযোগিতা করছে।

একজন সাবেক আমলা বলেছেন, মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো দুর্নীতির দেরাজ খুলে বসেছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মন্ত্রণালয়ের সচিবরা এ বিষয়ে ভালো উত্তর দিতে পারবেন।