ঢাকা ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জোরপূর্বক বাড়ি দখলের অভিযোগ

জোরপূর্বক বাড়ি দখলের অভিযোগ

রাজধানীর পশ্চিম ধানমন্ডির ১১০/৩ নাম্বার শরিফ ম্যানশন নামের ৪তলা বিশিষ্ট একটি ভবন ও ভবন সংশ্লিষ্ট সকল জিনিসপত্র হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে জোরপূর্বক বাড়ি দখল ও এনআরবিসি ব্যাংকের কাছে হস্তান্তরের অভিযোগ উঠেছে।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা জেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হুসাইনের নেতৃত্বে ভবনটি এনআরবিসি ব্যাংকের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় ঘটনাস্থলে বাড়িটির মালিক পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বৃষ্টি আক্তার এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন কোর্টে এ বিষয়ে একটি পিটিশন করা হয়েছে সেই পিটিশনের হেয়ারিং চলছে, তারা হেয়ারিং পর্যন্ত অপেক্ষা না করে জোড় পূর্বক দখল ও হস্তান্তর করেছেন। তবে এই বিষয়ে পজিটিভ অর্ডার আসলে দখল হস্তান্তর বাতিল হয়ে যাবে।

এদিকে ব্যাংকের বিভিন্ন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে চাইলেও তারা কোনো তথ্য না দিয়ে অফিসে যেতে বলে।

হস্তান্তর ও দখল বিষয়ে এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো উত্তর না দিয়ে গাড়িতে উঠে স্থান ত্যাগ করেন।

জানা যায়, বাড়িটির মালিক এনআরসি ব্যাংক থেকে লোন নিয়েছিলেন। যা এক বছর মেয়াদি। কিন্তু তিনি পরিশোধ না করায় ব্যাংক খেলাপি দেখিয়ে বাড়িটি নিলামে বিক্রি করে দিয়েছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই নেই: বাইডেন

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জোরপূর্বক বাড়ি দখলের অভিযোগ

আপডেট সময় ১১:৫৮:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪

রাজধানীর পশ্চিম ধানমন্ডির ১১০/৩ নাম্বার শরিফ ম্যানশন নামের ৪তলা বিশিষ্ট একটি ভবন ও ভবন সংশ্লিষ্ট সকল জিনিসপত্র হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে জোরপূর্বক বাড়ি দখল ও এনআরবিসি ব্যাংকের কাছে হস্তান্তরের অভিযোগ উঠেছে।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা জেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হুসাইনের নেতৃত্বে ভবনটি এনআরবিসি ব্যাংকের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় ঘটনাস্থলে বাড়িটির মালিক পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বৃষ্টি আক্তার এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন কোর্টে এ বিষয়ে একটি পিটিশন করা হয়েছে সেই পিটিশনের হেয়ারিং চলছে, তারা হেয়ারিং পর্যন্ত অপেক্ষা না করে জোড় পূর্বক দখল ও হস্তান্তর করেছেন। তবে এই বিষয়ে পজিটিভ অর্ডার আসলে দখল হস্তান্তর বাতিল হয়ে যাবে।

এদিকে ব্যাংকের বিভিন্ন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে চাইলেও তারা কোনো তথ্য না দিয়ে অফিসে যেতে বলে।

হস্তান্তর ও দখল বিষয়ে এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো উত্তর না দিয়ে গাড়িতে উঠে স্থান ত্যাগ করেন।

জানা যায়, বাড়িটির মালিক এনআরসি ব্যাংক থেকে লোন নিয়েছিলেন। যা এক বছর মেয়াদি। কিন্তু তিনি পরিশোধ না করায় ব্যাংক খেলাপি দেখিয়ে বাড়িটি নিলামে বিক্রি করে দিয়েছে।