ঢাকা ০৫:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক কেটে ২৯ লাখ টাকা লুট

বগুড়ায় সাড়ে চার মাসের ব্যবধানে আবারও ব্যাংকের টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। শহরের মাটিডালি আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক ভেঙে ২৯ লাখ ৪০ হাজার ৬১৮ টাকা চুরি করেছে দুর্বৃত্তরা।

বুধবার (১২ জুন) রাতের কোনো এক সময় এ ঘটনা ঘটে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বুধবার রাতের কোনো এক সময় আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক ভেঙে ২৯ লাখ ৪০ হাজার ৬১৮ টাকা চুরি করে দুর্বৃত্তরা। এ ব্যাংকে ম্যানেজারসহ চারজন কর্মরত। ব্যাংকের সিন্দুকে টাকা রেখে চলে যান কর্মকর্তারা। বৃহস্পতিবার সকালে ব্যাংকে গিয়ে সিন্দুক ভাঙা দেখে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইহান ওলিউল্লাহ জানান, ব্যাংকটিতে কোনো নিরাপত্তা প্রহরী ছিল না। প্রাথমিকভাবে ২৯ লাখ ৪০ হাজার ৬১৮ টাকা চুরির হিসাব নিশ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ তদন্ত অব্যাহত রেখেছে।

এর আগে চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি বগুড়া সদর উপজেলার পল্লীমঙ্গল হাটে এনআরবিসি ব্যাংকের ভল্ট থেকে ৯ লাখ ৭৮ হাজার টাকা চুরি করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক রাশেদুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা করেছেন।

বগুড়ায় আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক কেটে ২৯ লাখ টাকা লুট

আপডেট সময় ০৬:০০:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

বগুড়ায় সাড়ে চার মাসের ব্যবধানে আবারও ব্যাংকের টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। শহরের মাটিডালি আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক ভেঙে ২৯ লাখ ৪০ হাজার ৬১৮ টাকা চুরি করেছে দুর্বৃত্তরা।

বুধবার (১২ জুন) রাতের কোনো এক সময় এ ঘটনা ঘটে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বুধবার রাতের কোনো এক সময় আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক ভেঙে ২৯ লাখ ৪০ হাজার ৬১৮ টাকা চুরি করে দুর্বৃত্তরা। এ ব্যাংকে ম্যানেজারসহ চারজন কর্মরত। ব্যাংকের সিন্দুকে টাকা রেখে চলে যান কর্মকর্তারা। বৃহস্পতিবার সকালে ব্যাংকে গিয়ে সিন্দুক ভাঙা দেখে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইহান ওলিউল্লাহ জানান, ব্যাংকটিতে কোনো নিরাপত্তা প্রহরী ছিল না। প্রাথমিকভাবে ২৯ লাখ ৪০ হাজার ৬১৮ টাকা চুরির হিসাব নিশ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ তদন্ত অব্যাহত রেখেছে।

এর আগে চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি বগুড়া সদর উপজেলার পল্লীমঙ্গল হাটে এনআরবিসি ব্যাংকের ভল্ট থেকে ৯ লাখ ৭৮ হাজার টাকা চুরি করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক রাশেদুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা করেছেন।