ঢাকা ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ইসরাইল-ফিলিস্তিন যুদ্ধের জন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র : রাশিয়া

ইসরাইল-ফিলিস্তিন যুদ্ধের জন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র : রাশিয়া

ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাতের জন্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে রাশিয়া। পাশাপাশি চলমান এই যুদ্ধবিরতির জন্যও আহ্বান জানিয়েছে দেশটি। একই সঙ্গে সব ধরনের সহিংসতা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন রুশ রাষ্ট্রদূত।

এদিকে অবরুদ্ধ গাজায় স্থল অভিযান শুরু করেছে ইসরাইলি বাহিনী। ফলে উত্তর গাজা থেকে পালিয়ে যাচ্ছে লাখ লাখ ফিলিস্তিনি। ইতোমধ্যে চার লাখ ফিলিস্তিনি গাজা সিটি ছেড়েছে বলে খবর দিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। আবার উত্তর গাজা থেকে দক্ষিণ গাজায় যাওয়ার সময় ইসরাইলি হামলায় অন্তত ৭০ জন নিহত হয়েছেন।

এদিকে লেবাননে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর হামলায় ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক ফটো সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আল জাজিরা, রয়টার্স, এপিসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের বেশ কয়েকজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। বার্তা সংস্থা রায়টার্স নিশ্চিত করেছে শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) ওই হামলায় তাদের ফটো সাংবাদিক ইসাম আবদুল্লাহ মারা গেছেন।

এর আগে উত্তর গাজায় বসবাসকারী ১০ লাখের বেশি ফিলিস্তিনিকে সরে যাওয়ার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে ইসরাইল। তাদের দক্ষিণ গাজায় চলে যেতে বলা হয়। জাতিসংঘ এ ধরনের আল্টিমেটাম প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে। ফিলিস্তিনের সংগঠন হামাস গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলে নজিরবিহীন হামলা চালায়। হামাসের হামলায় দেশটিতে নিহত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩০০।

এর জবাবে ওই দিন থেকেই পালটা বিমান হামলা শুরু করে ইসরাইল। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় প্রায় দুই হাজার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে সাড়ে ৬ হাজার।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, ইসরাইলি হামলায় গাজায় নতুন করে বাস্তুচ্যুত হয়েছে প্রায় সাড়ে চার লাখ।

জনপ্রিয় সংবাদ

ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টারের সন্ধান মিলেছে , ‘প্রাণের অস্তিত্ব নেই’

ইসরাইল-ফিলিস্তিন যুদ্ধের জন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র : রাশিয়া

আপডেট সময় ১২:২০:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২৩

ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাতের জন্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে রাশিয়া। পাশাপাশি চলমান এই যুদ্ধবিরতির জন্যও আহ্বান জানিয়েছে দেশটি। একই সঙ্গে সব ধরনের সহিংসতা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন রুশ রাষ্ট্রদূত।

এদিকে অবরুদ্ধ গাজায় স্থল অভিযান শুরু করেছে ইসরাইলি বাহিনী। ফলে উত্তর গাজা থেকে পালিয়ে যাচ্ছে লাখ লাখ ফিলিস্তিনি। ইতোমধ্যে চার লাখ ফিলিস্তিনি গাজা সিটি ছেড়েছে বলে খবর দিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। আবার উত্তর গাজা থেকে দক্ষিণ গাজায় যাওয়ার সময় ইসরাইলি হামলায় অন্তত ৭০ জন নিহত হয়েছেন।

এদিকে লেবাননে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর হামলায় ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক ফটো সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আল জাজিরা, রয়টার্স, এপিসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের বেশ কয়েকজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। বার্তা সংস্থা রায়টার্স নিশ্চিত করেছে শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) ওই হামলায় তাদের ফটো সাংবাদিক ইসাম আবদুল্লাহ মারা গেছেন।

এর আগে উত্তর গাজায় বসবাসকারী ১০ লাখের বেশি ফিলিস্তিনিকে সরে যাওয়ার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছে ইসরাইল। তাদের দক্ষিণ গাজায় চলে যেতে বলা হয়। জাতিসংঘ এ ধরনের আল্টিমেটাম প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে। ফিলিস্তিনের সংগঠন হামাস গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলে নজিরবিহীন হামলা চালায়। হামাসের হামলায় দেশটিতে নিহত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩০০।

এর জবাবে ওই দিন থেকেই পালটা বিমান হামলা শুরু করে ইসরাইল। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় প্রায় দুই হাজার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে সাড়ে ৬ হাজার।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, ইসরাইলি হামলায় গাজায় নতুন করে বাস্তুচ্যুত হয়েছে প্রায় সাড়ে চার লাখ।