ঢাকা ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য সময়সীমা বাড়াবে না মালয়েশিয়া

বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য সময়সীমা বাড়াবে না মালয়েশিয়া

বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য মালেশিয়ায় প্রবেশের সময়সীমা না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি সাইফুদ্দিন নাসুসন ইসমাইল এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রায় ১৭ হাজার বাংলাদেশি কর্মীর মালয়েশিয়ায় যেতে সর্বশেষ সময় ছিল ৩১ মে। এটি এক সপ্তাহ বাড়ানোর জন্য সপ্তাহখানেক আগে মালয়েশিয়া সরকারকে অনুরোধ করছিল প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যম নিউ স্ট্রেট টাইমস জানিয়েছে, মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি সাইফুদ্দিন নাসুসন ইসমাইল সাংবাদিকদের বলেছেন, ৩১ মে সময়সীমা নির্ধারণের আগে সব কারণ বিবেচনা করা হয়েছিল। তিনি বলেন, ‘সুতরাং, আপনারা যদি আমাকে জিজ্ঞেস করেন, সময় বাড়ানো হবে কি না, উত্তর হবে না। আমরা অনেক আগেই ৩১ মে এর সময়সীমা ঘোষণা করেছি।’

সাইফুদ্দিন জানান, কোটা অনুমোদন, স্বাস্থ্য পরীক্ষা, ভিসা প্রক্রিয়াকরণ এবং ফ্লাইট ব্যবস্থাসহ সব প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া সাবধানতার সাথে বিবেচনা করে সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এই সময়সীমা যুক্তিসঙ্গত ছিল।

তিনি বলেন, ‘২৮ থেকে ৩১ মে এর মধ্যে, আমরা ২০ হাজারেরও বেশি বিদেশি শ্রমিকের দেশে প্রবেশ রেকর্ড করেছি। তাদের মধ্যে কয়েকজন গত বছরের নভেম্বরের প্রথম দিকে তাদের ভিসা পেয়েছিলেন।’

সাইফুদ্দিন প্রশ্ন তোলেন, যদি জরুরি প্রয়োজনই হয়, তাহলে কেন নিয়োগকর্তারা তাদের কর্মীদের আগমনের ব্যবস্থা করার জন্য এতদিন অপেক্ষা করেছিলেন।

সাইফুদ্দিন জানান, ডিসেম্বর নাগাদ মালয়েশিয়ায় বিদেশি শ্রমিকের সংখ্যা দাঁড়াবে ২৬ লাখ। দেশের অর্থনৈতিক পরিকল্পনা ইউনিটের নির্ধারিত সংখ্যা ছিল ২৫ লাখ। সেই হিসাবে এই সংখ্যা এক লাখ বেশি।

জনপ্রিয় সংবাদ

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই নেই: বাইডেন

বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য সময়সীমা বাড়াবে না মালয়েশিয়া

আপডেট সময় ০৯:১৮:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪

বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য মালেশিয়ায় প্রবেশের সময়সীমা না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি সাইফুদ্দিন নাসুসন ইসমাইল এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রায় ১৭ হাজার বাংলাদেশি কর্মীর মালয়েশিয়ায় যেতে সর্বশেষ সময় ছিল ৩১ মে। এটি এক সপ্তাহ বাড়ানোর জন্য সপ্তাহখানেক আগে মালয়েশিয়া সরকারকে অনুরোধ করছিল প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যম নিউ স্ট্রেট টাইমস জানিয়েছে, মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি সাইফুদ্দিন নাসুসন ইসমাইল সাংবাদিকদের বলেছেন, ৩১ মে সময়সীমা নির্ধারণের আগে সব কারণ বিবেচনা করা হয়েছিল। তিনি বলেন, ‘সুতরাং, আপনারা যদি আমাকে জিজ্ঞেস করেন, সময় বাড়ানো হবে কি না, উত্তর হবে না। আমরা অনেক আগেই ৩১ মে এর সময়সীমা ঘোষণা করেছি।’

সাইফুদ্দিন জানান, কোটা অনুমোদন, স্বাস্থ্য পরীক্ষা, ভিসা প্রক্রিয়াকরণ এবং ফ্লাইট ব্যবস্থাসহ সব প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া সাবধানতার সাথে বিবেচনা করে সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এই সময়সীমা যুক্তিসঙ্গত ছিল।

তিনি বলেন, ‘২৮ থেকে ৩১ মে এর মধ্যে, আমরা ২০ হাজারেরও বেশি বিদেশি শ্রমিকের দেশে প্রবেশ রেকর্ড করেছি। তাদের মধ্যে কয়েকজন গত বছরের নভেম্বরের প্রথম দিকে তাদের ভিসা পেয়েছিলেন।’

সাইফুদ্দিন প্রশ্ন তোলেন, যদি জরুরি প্রয়োজনই হয়, তাহলে কেন নিয়োগকর্তারা তাদের কর্মীদের আগমনের ব্যবস্থা করার জন্য এতদিন অপেক্ষা করেছিলেন।

সাইফুদ্দিন জানান, ডিসেম্বর নাগাদ মালয়েশিয়ায় বিদেশি শ্রমিকের সংখ্যা দাঁড়াবে ২৬ লাখ। দেশের অর্থনৈতিক পরিকল্পনা ইউনিটের নির্ধারিত সংখ্যা ছিল ২৫ লাখ। সেই হিসাবে এই সংখ্যা এক লাখ বেশি।