ঢাকা ০৪:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিল্পের বর্জ্য যেন নদীতে না পড়ে, প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধ

শিল্পের বর্জ্য যেন নদীতে না পড়ে, প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের শিল্প খাতকে পরিবেশবান্ধব করতে চাই। শিল্প খাত পরিবেশবান্ধব হওয়া উচিত। যারা শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলবেন, অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন যেন শিল্পের বর্জ্য নদীতে না পড়ে। পানি যেন কোনোরকম দূষিত না হয়, সেদিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি রাখার জন্য আমি অনুরোধ জানাচ্ছি। রোববার (১৯ মে) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭ দিনব্যাপী ১১তম জাতীয় ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) মেলার উদ্বোধন করেছেন। অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ভৌগোলিক সীমারেখায় আমাদের দেশ অত্যন্ত ছোট, কিন্তু জনসংখ্যার দিক দিয়ে বড়। সে ক্ষেত্রে দেশের পরিবেশসহ সবকিছু পরিকল্পিতভাবে হওয়া উচিত, স্বাস্থ্যসম্মত হওয়া উচিত।

শিল্প গড়ে তুলতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, শিল্প বর্জ্য ব্যবস্থাপনা অবশ্যই সবাইকে করতে হবে। সামান্য একটু কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে গিয়ে দেশের সর্বনাশ, নিজের সর্বনাশ করবেন না। আমরা চাই শিল্প গড়ে উঠুক। পাশাপাশি পরিবেশের দিকেও দৃষ্টি দিতে হবে। এসএমই ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এই মেলা চলবে ২৫ মে পর্যন্ত। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

মেলায় তিন শতাধিক উদ্যোক্তা অংশ নেন। মেলায় প্রায় ৬০ শতাংশ অংশগ্রহণকারী নারী উদ্যোক্তা। এসএমই মেলায় ১০০ শতাংশ দেশীয় পণ্য প্রদর্শন করা হবে। এবারের মেলায় সাড়ে তিন শতাধিক কোম্পানি অংশগ্রহণ করবে।

প্রধানমন্ত্রী এ উপলক্ষে বেশ কিছু ক্ষুদ্র, মাঝারি ও স্টার্ট-আপ উদ্যোক্তাদের হাতে ক্রেস্ট ও অ্যাক্রিডিটেশন সার্টিফিকেটসহ জাতীয় এসএমই পুরস্কার-২০২৩ হস্তান্তর করেন।

বেনজীর আহমেদকে আর সময় দেওয়া হবে না: দুদকের আইনজীবী

শিল্পের বর্জ্য যেন নদীতে না পড়ে, প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধ

আপডেট সময় ০৭:২৬:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের শিল্প খাতকে পরিবেশবান্ধব করতে চাই। শিল্প খাত পরিবেশবান্ধব হওয়া উচিত। যারা শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলবেন, অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন যেন শিল্পের বর্জ্য নদীতে না পড়ে। পানি যেন কোনোরকম দূষিত না হয়, সেদিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি রাখার জন্য আমি অনুরোধ জানাচ্ছি। রোববার (১৯ মে) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭ দিনব্যাপী ১১তম জাতীয় ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) মেলার উদ্বোধন করেছেন। অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ভৌগোলিক সীমারেখায় আমাদের দেশ অত্যন্ত ছোট, কিন্তু জনসংখ্যার দিক দিয়ে বড়। সে ক্ষেত্রে দেশের পরিবেশসহ সবকিছু পরিকল্পিতভাবে হওয়া উচিত, স্বাস্থ্যসম্মত হওয়া উচিত।

শিল্প গড়ে তুলতে হবে জানিয়ে তিনি বলেন, শিল্প বর্জ্য ব্যবস্থাপনা অবশ্যই সবাইকে করতে হবে। সামান্য একটু কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে গিয়ে দেশের সর্বনাশ, নিজের সর্বনাশ করবেন না। আমরা চাই শিল্প গড়ে উঠুক। পাশাপাশি পরিবেশের দিকেও দৃষ্টি দিতে হবে। এসএমই ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এই মেলা চলবে ২৫ মে পর্যন্ত। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

মেলায় তিন শতাধিক উদ্যোক্তা অংশ নেন। মেলায় প্রায় ৬০ শতাংশ অংশগ্রহণকারী নারী উদ্যোক্তা। এসএমই মেলায় ১০০ শতাংশ দেশীয় পণ্য প্রদর্শন করা হবে। এবারের মেলায় সাড়ে তিন শতাধিক কোম্পানি অংশগ্রহণ করবে।

প্রধানমন্ত্রী এ উপলক্ষে বেশ কিছু ক্ষুদ্র, মাঝারি ও স্টার্ট-আপ উদ্যোক্তাদের হাতে ক্রেস্ট ও অ্যাক্রিডিটেশন সার্টিফিকেটসহ জাতীয় এসএমই পুরস্কার-২০২৩ হস্তান্তর করেন।