ঢাকা ০৬:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধূমপান নিষিদ্ধ হচ্ছে ব্রিটেনে

ধূমপান নিষিদ্ধ হচ্ছে ব্রিটেনে

তরুণদের জন্য সিগারেট নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ব্রিটেন। বুধবার এক প্রস্তাবে ব্রিটেন সরকার জানায়, তরুণ প্রজন্ম যেন সিগারেট কেনা থেকে দূরে থাকে, সে ব্যবস্থা করা হবে। প্রস্তাবটি পাস হলে ব্রিটেন হবে ধূমপানের বিরুদ্ধে বিশ্বের অন্যতম কঠোর দেশ। এতে করে বড় তামাক সংস্থাগুলোর বিক্রিতে প্রভাব পড়তে পারে।

প্রস্তাবে বলা হচ্ছে, প্রতিবছরই ধূমপানের সর্বনিম্ন বয়স এক বছর করে বাড়ানো হবে। এতে করে ২০৪০ সালের মধ্যে তরুণদের মধ্যে ধূমপান একদম কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। প্রস্তাবটি ঘোষণা করার সময় প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক জানিয়েছেন, একজন ১৪ বছর বয়সী বালকের কাছে কখনোই আইনত সিগারেট বিক্রি করা হবে না। ধূমপানের কারণে ব্রিটেনের স্বাস্থ্য খাতে দুই হাজার কোটি ডলারের ক্ষতি হয়। তরুণদের মধ্যে ভেপিং প্রবণতা নিয়েও কাজ করার আছে বলেন সুনাক।

অ্যাকশন অন স্মোকিং অ্যান্ড হেলথ সুনাকের পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছে। তারা বলছে, এভাবে চলতে থাকলে অচিরেই ধূমপান বন্ধ করা যাবে। তবে তামাকশিল্প এই প্রস্তাবের সমালোচনা করেছে। টোব্যাকো ম্যানুফ্যাকচার অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, এটি প্রাপ্তবয়স্কদের অধিকারের ওপর বৈষম্য। এ ছাড়া এতে কালোবাজারিও বাড়বে। সংগঠনটি জানায়, বৈধ পণ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞার মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে। এতে করে অপরাধীরা অবৈধভাবে এগুলো বিক্রি করার সুযোগ তৈরি করে। রয়টার্স।

বেনজীর আহমেদকে আর সময় দেওয়া হবে না: দুদকের আইনজীবী

ধূমপান নিষিদ্ধ হচ্ছে ব্রিটেনে

আপডেট সময় ০৯:১৮:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ অক্টোবর ২০২৩

তরুণদের জন্য সিগারেট নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ব্রিটেন। বুধবার এক প্রস্তাবে ব্রিটেন সরকার জানায়, তরুণ প্রজন্ম যেন সিগারেট কেনা থেকে দূরে থাকে, সে ব্যবস্থা করা হবে। প্রস্তাবটি পাস হলে ব্রিটেন হবে ধূমপানের বিরুদ্ধে বিশ্বের অন্যতম কঠোর দেশ। এতে করে বড় তামাক সংস্থাগুলোর বিক্রিতে প্রভাব পড়তে পারে।

প্রস্তাবে বলা হচ্ছে, প্রতিবছরই ধূমপানের সর্বনিম্ন বয়স এক বছর করে বাড়ানো হবে। এতে করে ২০৪০ সালের মধ্যে তরুণদের মধ্যে ধূমপান একদম কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। প্রস্তাবটি ঘোষণা করার সময় প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক জানিয়েছেন, একজন ১৪ বছর বয়সী বালকের কাছে কখনোই আইনত সিগারেট বিক্রি করা হবে না। ধূমপানের কারণে ব্রিটেনের স্বাস্থ্য খাতে দুই হাজার কোটি ডলারের ক্ষতি হয়। তরুণদের মধ্যে ভেপিং প্রবণতা নিয়েও কাজ করার আছে বলেন সুনাক।

অ্যাকশন অন স্মোকিং অ্যান্ড হেলথ সুনাকের পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছে। তারা বলছে, এভাবে চলতে থাকলে অচিরেই ধূমপান বন্ধ করা যাবে। তবে তামাকশিল্প এই প্রস্তাবের সমালোচনা করেছে। টোব্যাকো ম্যানুফ্যাকচার অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, এটি প্রাপ্তবয়স্কদের অধিকারের ওপর বৈষম্য। এ ছাড়া এতে কালোবাজারিও বাড়বে। সংগঠনটি জানায়, বৈধ পণ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞার মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে। এতে করে অপরাধীরা অবৈধভাবে এগুলো বিক্রি করার সুযোগ তৈরি করে। রয়টার্স।