ঢাকা ১১:৪০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ঢাকা দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত

ঢাকা দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত

আজ সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫.২। তবে তাৎক্ষণিকভাবে (সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত) এতে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র জানিয়েছে, মাঝারি মাত্রার এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের মেঘালয় রাজ্য। ঢাকা থেকে এর দূরত্ব ২৩৬ কিলোমিটার উত্তর দিকে। ভারতের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণকারী সরকারি সংস্থা ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের মেঘালয়ের উত্তর গারো পাহাড়ে। এর গভীরতা ছিল ১০ কিলোমিটার।

এর আগে ভূকম্পন অনুভূত হওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে গুগলের অ্যানড্রয়েড আর্থকোয়েক অ্যালার্ট সিস্টেম জানিয়েছিল, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫.৩, উৎপত্তিস্থল ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রেসুবেলপাড়া থেকে তিন কিলোমিটার দূরে। সর্বশেষ গত ১৭ সেপ্টেম্বর (রবিবার) রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ৪.২ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এর উৎপত্তিস্থল ছিল ঢাকা থেকে ৫৯ কিলোমিটার দূরে (উত্তর-উত্তর-পশ্চিম দিকে), টাঙ্গাইলে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র জানিয়েছে, গত সেপ্টেম্বর মাসে দেশে সর্বমোট তিনবার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ১১ সেপ্টেম্বর সিলেট অঞ্চলে অনুভূত হওয়া ৫ মাত্রার ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ভারত-মিয়ানমার সীমান্ত। ৯ সেপ্টেম্বর আরেকটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ৪.৪ মাত্রার ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের আসামের কাছাড় এলাকায়।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টারের সন্ধান মিলেছে , ‘প্রাণের অস্তিত্ব নেই’

ঢাকা দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত

আপডেট সময় ১১:০৬:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ অক্টোবর ২০২৩

আজ সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫.২। তবে তাৎক্ষণিকভাবে (সন্ধ্যা ৭টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত) এতে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র জানিয়েছে, মাঝারি মাত্রার এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের মেঘালয় রাজ্য। ঢাকা থেকে এর দূরত্ব ২৩৬ কিলোমিটার উত্তর দিকে। ভারতের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণকারী সরকারি সংস্থা ন্যাশনাল সেন্টার ফর সিসমোলজি জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের মেঘালয়ের উত্তর গারো পাহাড়ে। এর গভীরতা ছিল ১০ কিলোমিটার।

এর আগে ভূকম্পন অনুভূত হওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে গুগলের অ্যানড্রয়েড আর্থকোয়েক অ্যালার্ট সিস্টেম জানিয়েছিল, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫.৩, উৎপত্তিস্থল ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রেসুবেলপাড়া থেকে তিন কিলোমিটার দূরে। সর্বশেষ গত ১৭ সেপ্টেম্বর (রবিবার) রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ৪.২ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এর উৎপত্তিস্থল ছিল ঢাকা থেকে ৫৯ কিলোমিটার দূরে (উত্তর-উত্তর-পশ্চিম দিকে), টাঙ্গাইলে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র জানিয়েছে, গত সেপ্টেম্বর মাসে দেশে সর্বমোট তিনবার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ১১ সেপ্টেম্বর সিলেট অঞ্চলে অনুভূত হওয়া ৫ মাত্রার ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ভারত-মিয়ানমার সীমান্ত। ৯ সেপ্টেম্বর আরেকটি ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ৪.৪ মাত্রার ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল ভারতের আসামের কাছাড় এলাকায়।