ঢাকা ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারের উদ্দেশ্য হলো খালেদা জিয়াকে হত্যা করা: ফখরুল

সরকারের উদ্দেশ্য হলো খালেদা জিয়াকে হত্যা করা: ফখরুল

নয়া পল্টনে কৃষক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।প্রায় দুই মাস ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার হত্যা করতে চায় বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, গণতন্ত্রের আপসহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে হত্যা করাই এই অনির্বাচিত ও অবৈধ সরকারের উদ্দেশ্য। সোমবার (২ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে কৃষক সমাবেশে এ অভিযোগ করেন তিনি। সরকারের পদত্যাগ এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী কৃষক দল।

খালেদা জিয়াকে কোনো সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না, অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রতারণা করে জনগণকে ভুল বুঝিয়ে, আইনের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে তাকে বিনা চিকিৎসায় সরকার হত্যা করতে চায়। তারা যে কথাগুলো বলছেন, সেটার উদ্দেশ্য একটাই; তারা আসলে কাপুরুষ-ভীতু। তারা জানে, খালেদা জিয়া যদি সুস্থ হয়ে যান, আবার জনগণের মধ্যে ফিরে আসেন, তার ডাকে কোটি মানুষ রাস্তায় নেমে আসবে। তখন তারা ধ্বংস হয়ে যাবে।

খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধের সময় ৯ মাস কারাগারে বন্দি ছিলেন, উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমি সব সময় বলি, বাংলাদেশের প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা হচ্ছেন খালেদা জিয়া। এই কথা বললে আওয়ামী লীগ নেতাদের গায়ের মধ্যে আগুন জ্বলে। কারণ, তারা তো মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে জড়িত ছিল না। তারা তো সেদিন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ভাতা খেয়েছিল। বাস্তব কথা বলছি। অনেকের খারাপ লাগতে পারে, কিন্তু কথা সত্য। জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের সভাপতি হাসান জারিফ তুহিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন—বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, বরকত উল্লাহ বুলু, শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।

জনপ্রিয় সংবাদ

সরকারের উদ্দেশ্য হলো খালেদা জিয়াকে হত্যা করা: ফখরুল

আপডেট সময় ০৭:৩২:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ অক্টোবর ২০২৩

নয়া পল্টনে কৃষক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।প্রায় দুই মাস ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার হত্যা করতে চায় বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, গণতন্ত্রের আপসহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে হত্যা করাই এই অনির্বাচিত ও অবৈধ সরকারের উদ্দেশ্য। সোমবার (২ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে কৃষক সমাবেশে এ অভিযোগ করেন তিনি। সরকারের পদত্যাগ এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী কৃষক দল।

খালেদা জিয়াকে কোনো সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না, অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, প্রতারণা করে জনগণকে ভুল বুঝিয়ে, আইনের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে তাকে বিনা চিকিৎসায় সরকার হত্যা করতে চায়। তারা যে কথাগুলো বলছেন, সেটার উদ্দেশ্য একটাই; তারা আসলে কাপুরুষ-ভীতু। তারা জানে, খালেদা জিয়া যদি সুস্থ হয়ে যান, আবার জনগণের মধ্যে ফিরে আসেন, তার ডাকে কোটি মানুষ রাস্তায় নেমে আসবে। তখন তারা ধ্বংস হয়ে যাবে।

খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধের সময় ৯ মাস কারাগারে বন্দি ছিলেন, উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমি সব সময় বলি, বাংলাদেশের প্রথম নারী মুক্তিযোদ্ধা হচ্ছেন খালেদা জিয়া। এই কথা বললে আওয়ামী লীগ নেতাদের গায়ের মধ্যে আগুন জ্বলে। কারণ, তারা তো মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে জড়িত ছিল না। তারা তো সেদিন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ভাতা খেয়েছিল। বাস্তব কথা বলছি। অনেকের খারাপ লাগতে পারে, কিন্তু কথা সত্য। জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের সভাপতি হাসান জারিফ তুহিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন—বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, বরকত উল্লাহ বুলু, শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।