ঢাকা ০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ, নিহত অন্তত ৫২

পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ, নিহত অন্তত ৫২

পাকিস্তানের অশান্ত বেলুচিস্তান প্রদেশে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আয়োজিত মিছিলে শক্তিশালী বোমা হামলায় অন্তত ৫২ জন নিহত হয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার এই আত্মঘাতী হামলায় ৫০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছে বলে দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও পুলিশ জানিয়েছে। বিস্ফোরণটি একটি মসজিদের কাছে ঘটে, যেখানে মানুষ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন করতে জড়ো হয়েছিল। দেশটির সহকারী কমিশনার এক বিবৃতিতে বিস্ফোরণটিকে ‘বিশাল’ বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মানুষ মদিনা মসজিদে জড়ো হওয়ার পর একটি মিছিলে অংশ নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল।’ এটি একটি আত্মঘাতী বোমা হামলা ছিল।
স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে একজন পুলিশ সদস্যও রয়েছেন। তবে এ বিষয়ে এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।

স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও) জাভেদ লেহরি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আহতদের একটি চিকিৎসাকেন্দ্রে স্থানান্তরিত করা হয়েছে এবং স্থানীয় হাসপাতালে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। বেশির ভাগ মরদেহ এই হাসপাতালেই নেওয়া হয়েছে । বেলুচিস্তানের সমৃদ্ধ গ্যাস ও খনিজ সম্পদ শোষণের অভিযোগ এনে জাতিগত বেলুচ গেরিলারা কয়েক দশক ধরে সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ, নিহত অন্তত ৫২

আপডেট সময় ০৮:২২:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পাকিস্তানের অশান্ত বেলুচিস্তান প্রদেশে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আয়োজিত মিছিলে শক্তিশালী বোমা হামলায় অন্তত ৫২ জন নিহত হয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার এই আত্মঘাতী হামলায় ৫০ জনেরও বেশি মানুষ আহত হয়েছে বলে দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও পুলিশ জানিয়েছে। বিস্ফোরণটি একটি মসজিদের কাছে ঘটে, যেখানে মানুষ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন করতে জড়ো হয়েছিল। দেশটির সহকারী কমিশনার এক বিবৃতিতে বিস্ফোরণটিকে ‘বিশাল’ বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মানুষ মদিনা মসজিদে জড়ো হওয়ার পর একটি মিছিলে অংশ নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল।’ এটি একটি আত্মঘাতী বোমা হামলা ছিল।
স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে একজন পুলিশ সদস্যও রয়েছেন। তবে এ বিষয়ে এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।

স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও) জাভেদ লেহরি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আহতদের একটি চিকিৎসাকেন্দ্রে স্থানান্তরিত করা হয়েছে এবং স্থানীয় হাসপাতালে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। বেশির ভাগ মরদেহ এই হাসপাতালেই নেওয়া হয়েছে । বেলুচিস্তানের সমৃদ্ধ গ্যাস ও খনিজ সম্পদ শোষণের অভিযোগ এনে জাতিগত বেলুচ গেরিলারা কয়েক দশক ধরে সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে।