ঢাকা ০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দেশ বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে: ফখরুল

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:৩৪:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ১২২ বার পড়া হয়েছে

দেশ বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতির এই সংকটকালে পেশাজীবীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, এখন আর নীরব থাকার সুযোগ নেই। দেশ বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, জাতির সংকটকালে পেশাজীবীরা সব সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে পেশাজীবী কনভেনশন সফল করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় তিনি এ কথা বলেন।

সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেনের সভাপতিত্বে ও বিএসপিপির সদস্য সচিব সাংবাদিক কাদের গনি চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন গণসংহতি পরিষদের জোনায়েদ সাকি, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের (জেডআরএফ) নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, অধ্যাপক ডা. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, ডা. হারুন আল রশিদ, ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলাম রিজু, অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান, অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, ডা. মোর্শেদ হাসান খান, অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান, কৃষিবিদ রাশিদুল হাসান হারুন, কৃষিবিদ ড. জিকেএম মোস্তাফিজুর রহমান, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম সজল, প্রফেসর ডা. শামসুল আলম সেলিম, প্রফেসর ডা. গোলাম হাফিজ কেনেডি, ডা. এম এ সেলিম, ডা. জহিরুল ইসলাম শাকিল, অধ্যাপক মোহাম্মদ কামরুল আহসান, রফিকুল ইসলাম, প্রফেসর ডা. এমতাজ আহমেদ, অধ্যাপক তৌফিকুল ইসলাম মিথিল, ডা. মামুনুর রশীদ, ডা. জাহাঙ্গীর সরকার, ডা. ইদ্রিস আলী, ডা.সরকার মাহবুব আহমেদ শামীম, প্রফেসর আবুল হাসনাত শামীম, মাওলানা দেলোয়ার হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার ফখরুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার সাখাওয়াত হোসেন, বিপ্লব উজ্জামান, সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম কাগজী, এম সাঈদ খান, জিয়াউল হায়দার পলাশ, মির্জা লিটন, কামরুজ্জামান কল্লোল, ইঞ্জিনিয়ার হানিফ প্রমুখ।

প্রস্তুতি সভায় পেশাজীবী নেতারা বলেন, দেশে গণতন্ত্র হারিয়ে গেছে। যেকোনো মূল্যে আমরা গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। একইসঙ্গে দেশের মানুষকে মুক্ত করে একটি গণতান্ত্রিক সমাজ গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করব। এজন্য যত ত্যাগই স্বীকার করতে হয় বুদ্ধিজীবী পেশাজীবীরা করবে। পেশাজীবীরা বলেন, বর্তমান সরকার গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি নেই। সভা, সমাবেশ করার অধিকার এমন কী বাক স্বাধীনতাও আজ কেড়ে নেওয়া হয়েছে। সবচেয়ে বেশি নির্যাতীত পেশাজীবীরা। দেশের মানুষ আজ অসহায়।

দেশ বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে: ফখরুল

আপডেট সময় ০৮:৩৪:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতির এই সংকটকালে পেশাজীবীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, এখন আর নীরব থাকার সুযোগ নেই। দেশ বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, জাতির সংকটকালে পেশাজীবীরা সব সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে পেশাজীবী কনভেনশন সফল করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় তিনি এ কথা বলেন।

সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেনের সভাপতিত্বে ও বিএসপিপির সদস্য সচিব সাংবাদিক কাদের গনি চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন গণসংহতি পরিষদের জোনায়েদ সাকি, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের (জেডআরএফ) নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, অধ্যাপক ডা. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, ডা. হারুন আল রশিদ, ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলাম রিজু, অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান, অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, ডা. মোর্শেদ হাসান খান, অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান, কৃষিবিদ রাশিদুল হাসান হারুন, কৃষিবিদ ড. জিকেএম মোস্তাফিজুর রহমান, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম সজল, প্রফেসর ডা. শামসুল আলম সেলিম, প্রফেসর ডা. গোলাম হাফিজ কেনেডি, ডা. এম এ সেলিম, ডা. জহিরুল ইসলাম শাকিল, অধ্যাপক মোহাম্মদ কামরুল আহসান, রফিকুল ইসলাম, প্রফেসর ডা. এমতাজ আহমেদ, অধ্যাপক তৌফিকুল ইসলাম মিথিল, ডা. মামুনুর রশীদ, ডা. জাহাঙ্গীর সরকার, ডা. ইদ্রিস আলী, ডা.সরকার মাহবুব আহমেদ শামীম, প্রফেসর আবুল হাসনাত শামীম, মাওলানা দেলোয়ার হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার ফখরুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার সাখাওয়াত হোসেন, বিপ্লব উজ্জামান, সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম কাগজী, এম সাঈদ খান, জিয়াউল হায়দার পলাশ, মির্জা লিটন, কামরুজ্জামান কল্লোল, ইঞ্জিনিয়ার হানিফ প্রমুখ।

প্রস্তুতি সভায় পেশাজীবী নেতারা বলেন, দেশে গণতন্ত্র হারিয়ে গেছে। যেকোনো মূল্যে আমরা গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। একইসঙ্গে দেশের মানুষকে মুক্ত করে একটি গণতান্ত্রিক সমাজ গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করব। এজন্য যত ত্যাগই স্বীকার করতে হয় বুদ্ধিজীবী পেশাজীবীরা করবে। পেশাজীবীরা বলেন, বর্তমান সরকার গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি নেই। সভা, সমাবেশ করার অধিকার এমন কী বাক স্বাধীনতাও আজ কেড়ে নেওয়া হয়েছে। সবচেয়ে বেশি নির্যাতীত পেশাজীবীরা। দেশের মানুষ আজ অসহায়।