ঢাকা ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ম্যানসিটিকে জিততে দেয়নি চেলসি

ঘরের মাঠে হারের শঙ্কায় পেয়ে বসেছিল ম্যানচেস্টার সিটিকে। তবে শনিবার রদ্রির শেষ মুহূর্তের গোল বাঁচিয়েছে পেপ গার্দিওলার দলকে। ঘরের মাঠে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে চেলসির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে সিটি। সিটি পয়েন্ট হারানোয় লাভ হয়েছে শিরোপা দৌড়ে দলটির দুই প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুল ও আর্সেনালের।

শনিবারই নিজেদের ম্যাচে জয় পাওয়া দল দুটি আপাতত পয়েন্ট তালিকায় সিটির ওপরে আছে। ব্রেন্টফোর্ডের মাঠে ৪-১ গোলে জয় পাওয়া লিভারপুল ২৫ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে। বার্নলিকে ৫-০ গোলে হারানো আর্সেনালের পয়েন্ট সমান ম্যাচে ৫৫। এক ম্যাচ কম খেলা সিটির পয়েন্ট ৫৩।

প্রথমার্ধের ৪২ মিনিটে এগিয়ে গিয়েছিল চেলসি। গোলদাতা সিটির সাবেক তারকা রাহিম স্টার্লিং। ডান প্রান্ত দিয়ে সিটির বক্সে ঢুকে কাইল ওয়াকারের বাধা পেরিয়ে গোল পেয়ে যান স্টার্লিং। এরপর মনে হচ্ছিল সিটি সম্ভবত ঘরের মাঠে ৩৪ ম্যাচের মধ্যে প্রথম হারের স্বাদ পেতে যাচ্ছে। কিন্তু ৮৩ মিনিটে রদ্রির গোল বাঁচিয়ে দেয় টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়নদের।

সিটি ম্যাচটি খেলতে নেমেছিল সব প্রতিযোগিতায় টানা ১১ জয় নিয়ে। সেই সিটি প্রথমার্ধের শুরুতে স্ট্রাইকার আর্লিং হলান্ডের ব্যর্থতায় এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায়। খুব কাছ থেকে হেডে গোল করতে ব্যর্থ হন নরওয়েজীয় স্ট্রাইকার। স্টার্লিংয়ের গোলের আগে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ নষ্ট করে চেলসিও। নিকোলাস জ্যাকসন সিটি গোলরক্ষক এদেরসনকে একা পেয়েও পাননি গোলের দেখা।

জনপ্রিয় সংবাদ

ম্যানসিটিকে জিততে দেয়নি চেলসি

আপডেট সময় ১২:৫২:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ঘরের মাঠে হারের শঙ্কায় পেয়ে বসেছিল ম্যানচেস্টার সিটিকে। তবে শনিবার রদ্রির শেষ মুহূর্তের গোল বাঁচিয়েছে পেপ গার্দিওলার দলকে। ঘরের মাঠে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে চেলসির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে সিটি। সিটি পয়েন্ট হারানোয় লাভ হয়েছে শিরোপা দৌড়ে দলটির দুই প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুল ও আর্সেনালের।

শনিবারই নিজেদের ম্যাচে জয় পাওয়া দল দুটি আপাতত পয়েন্ট তালিকায় সিটির ওপরে আছে। ব্রেন্টফোর্ডের মাঠে ৪-১ গোলে জয় পাওয়া লিভারপুল ২৫ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে। বার্নলিকে ৫-০ গোলে হারানো আর্সেনালের পয়েন্ট সমান ম্যাচে ৫৫। এক ম্যাচ কম খেলা সিটির পয়েন্ট ৫৩।

প্রথমার্ধের ৪২ মিনিটে এগিয়ে গিয়েছিল চেলসি। গোলদাতা সিটির সাবেক তারকা রাহিম স্টার্লিং। ডান প্রান্ত দিয়ে সিটির বক্সে ঢুকে কাইল ওয়াকারের বাধা পেরিয়ে গোল পেয়ে যান স্টার্লিং। এরপর মনে হচ্ছিল সিটি সম্ভবত ঘরের মাঠে ৩৪ ম্যাচের মধ্যে প্রথম হারের স্বাদ পেতে যাচ্ছে। কিন্তু ৮৩ মিনিটে রদ্রির গোল বাঁচিয়ে দেয় টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়নদের।

সিটি ম্যাচটি খেলতে নেমেছিল সব প্রতিযোগিতায় টানা ১১ জয় নিয়ে। সেই সিটি প্রথমার্ধের শুরুতে স্ট্রাইকার আর্লিং হলান্ডের ব্যর্থতায় এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায়। খুব কাছ থেকে হেডে গোল করতে ব্যর্থ হন নরওয়েজীয় স্ট্রাইকার। স্টার্লিংয়ের গোলের আগে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ নষ্ট করে চেলসিও। নিকোলাস জ্যাকসন সিটি গোলরক্ষক এদেরসনকে একা পেয়েও পাননি গোলের দেখা।